logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭

মোবাইল ফোনের মাধ্যমেও ছড়াতে পারে করোনা! জীবাণুমুক্ত রাখতে যা করবেন 

  লাইফস্টাইল ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন

|  ১০ মার্চ ২০২০, ১৮:১৫ | আপডেট : ১০ মার্চ ২০২০, ১৮:৩৪
করোনা ভাইরাস, মোবাইল ফোন, জীবাণুমুক্ত,  করনীয়
মোবাইল ফোন জীবাণুমুক্ত করার পদ্ধতি।

বিশ্বজুড়ে আতঙ্কের নাম করোনাভাইরাস। দুশ্চিন্তায় বিশ্বের বহু মানুষ। প্রতিনিয়ত বিভিন্ন দেশের মানুষের আক্রান্ত হবার খবর শোনা যাচ্ছে।

সম্প্রতি একটি ভিডিও বার্তায়  ওয়ার্ল্ড ইকনোমিক ফোরাম জানায়, মোবাইল ফোনের স্ক্রিনে থাকতে পারে করোনাভাইরাস। যা সক্রিয় থাকতে পারে চারদিন। এর থেকে জীবাণু ছড়িয়ে যেতে পারে মানুষের শরীরে।

করোনাভাইরাসকে প্রতিরোধ করতে এবং করোনার থেকে বাঁচতে বা রক্ষা পেতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) ও বিভিন্ন স্বাস্থ্য দপ্তর প্রচার শুরু করেছে। তবে এই খবরটি শোনার পর নতুন ভয় জন্মেছে জনমনে।

কারণ, বিশ্বের বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ এই ছোট যন্ত্রটির ওপর নির্ভরশীল। তাই, প্রয়োজনীয় এই বস্তুটির উপরে করোনার থাবা রীতিমতো ভাবাচ্ছে সকলকে। বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনাভাইরাস শুধু মানব শরীরে নয় সুপ্ত অবস্থায় থেকে যেতে পারে মোবাইলের স্ক্রিনের মতো কঠিন পদার্থেও। কারণ, আপনার স্মার্টফোন এবং অন্যান্য গ্যাজেটগুলো ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাসের হট বেড, যা সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ায়।

জার্নাল অব হসপিটাল ইনফেকশন অনুযায়ী, সিভিয়ার অ্যাকিউট রেসপিরেটরি সিন্ড্রোম (SARS) করোনাভাইরাস, মিডিল ইস্ট রেসপিরেটরি সিনড্রোম (MERS) করোনাভাইরাস অথবা এন্ডেমিক হিউম্যান (EH) করোনাভাইরাস ৯ দিন পর্যন্ত কাঁচ, প্লাস্টিক বা ধাতব জাতীয় পদার্থের পৃষ্ঠে জীবন্ত থাকতে পারে। যার অর্থ হলো আপনি-আমি যতই আপনার হাত পরিষ্কার রাখি না কেন, মোবাইল ফোন যদি সঠিকভাবে পরিষ্কার না রাখি তাহলে এই জীবাণু দ্বারা আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা থাকবে।

এই সংক্রমণ থেকে বাঁচতে হলে সতর্ক থাকতে হবে। ফোন, ল্যাপটপ বা বিভিন্ন গ্যাজেটগুলো সঠিক উপায়ে পরিষ্কার এবং জীবাণুমুক্ত করে তুলতে হবে। কিন্তু কিভাবে করব?

জেনে নিন বিভিন্ন গ্যাজেট জীবাণুমুক্ত করার কিছু সহজ কিছু পদ্ধতি

১. যদি আপনার স্মার্টফোন বা ল্যাপটপ ওয়াটারপ্রুফ হয় তবে ফোন বা ল্যাপটপটি পরিষ্কার করতে সাবান পানি অথবা হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করুন।

২. যদি আপনার ফোনটি ওয়াটারপ্রুফ না হয় তবে জীবাণুমুক্ত করতে স্ক্রিনটি নরম ও স্যাঁতসেঁতে মাইক্রো ফাইবার কাপড় দিয়ে পরিষ্কার করুন এবং কাপড়টি ফেলে দিন।

৩. ফোন বা ল্যাপটপের ওপরে যদি কোন আচ্ছাদন থাকে তবে সেটিও স্যাঁতস্যাঁতে কাপড় দিয়ে পরিষ্কার করুন এবং কাপড়টি ফেলে দিন।

৪. বিশেষজ্ঞদের মতে, ফোন জীবাণুমুক্ত করার জন্য দিনে দু'বার মাইক্রো ফাইবার কাপড় দিয়ে পরিষ্কার করুন।

৫. ফোন পরিষ্কার করার পর অবশ্যই সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে তারপরে ফোন ব্যবহার করবেন।

যে সব বিষয়ের দিকে নজর দিতে হবে-

১. স্মার্টফোনের স্ক্রিনটি অ্যালকোহল দিয়ে মুছবেন না, এতে স্ক্রিন নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

২. অন্য কারও ফোন বা ল্যাপটপ স্পর্শ করা এড়িয়ে চলুন এবং আপনার জিনিস অন্যকে দেওয়া থেকেও বিরত থাকুন।

৩. ফোনের গ্লাস যদি খুব নোংরা হয় তবে তা ব্যবহার করবেন না, শিগগিরই পরিবর্তন করুন।

৪. গ্যাজেটগুলো পরিষ্কার করতে বাড়ির ক্লিনার, এয়ারসোল স্প্রে ব্যবহার করবেন না।

জিএ 

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ৩৫৫৪৯৩ ২৬৫০৯২ ৫০৭২
বিশ্ব ৩,২১,৯৬,৬৫৫ ২,৩৭,৫১,১৩৪ ৯,৮৩,৬০৯
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • লাইফস্টাইল এর সর্বশেষ
  • লাইফস্টাইল এর পাঠক প্রিয়