logo
  • ঢাকা সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ২৯ চৈত্র ১৪২৭

সকালে সাইকেল চালালেই ৬ রোগ থেকে মুক্তি!

সকালে সাইকেল চালালেই ৬ রোগ থেকে মুক্তি!

প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে শারীরিক ব্যায়াম করতে চান না। তাদের হাঁটতে বা দৌড়াতে ভালো লাগে না। তবে সাইকেল চালানো কিন্তু খারাপ না। সকলেই কম-বেশি সাইকেল চালাতে ভালোবাসেন। এতে করে শারীরিক ব্যায়ামও হয়। নিয়মিত সাইকেল চালানোর ফলে ওবেসিট, ডায়াবেটিসসহ ছোট-খাটো বিভিন্ন রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এছাড়াও হার্ট ভালো থাকে। এবার তাহলে নিয়মিত সাইকেল চালানোর উপকারিতা সম্পর্কে তুলে ধরা হলো-

অবসাদ থেকে মুক্তি : অনেক মানুষই আছেন যারা অবসাদে ভুগেন। যারা অবসাদে ভুগছেন তারা অবসাদ কাটাতে সাইকেল চালাতে পারেন। নিয়মিত সাইকেল চালানোর ফলে শরীর থেকে এন্ডোরফিনস ও অয়াড্রিনালিন হরমোন নিঃসৃত হয়। এতে করে আত্মবিশ্বাস আরও বৃদ্ধি পায়। এছাড়াও সাইকেল চালানোর ফলে মনঃসংযোগও বৃদ্ধি পায়।

ভালো ঘুম : গবেষণা বলছে, নিয়মিত সাইকেল চালালে ফিজিক্যালি অ্যাংজাইটি অনেকাংশে কমে যায়। এতে করে রাতে ভালো ঘুম হয়। তবে সাবধান, ভরপেটে কখনো সাইকেল চালাবেন না। সকালে ঘুম থেকে উঠে সাইকেল চালালে হালকা কিছু খেয়ে চালানো উত্তম।

ওজন হ্রাস : অনেকেই ছাদে বা মাঠে বৃত্তাকার সাইকেল চালায়। এর থেকে খোলা রাস্তায় সাইকেল চালানো ভালো। তবে ভোরে চালানো আরও ভালো। এতে করে গাড়ির ঝামেলা থাকে না। এক ঘণ্টা সাইকেল চালানোর ফলে প্রায় ৫০০ ক্যালোরি কমে। তবে সাবধান, সাইকেল চালানোর সময় হেডফোন রাখবেন না।

ফুসফুসের কার্যক্ষমতা বাড়ে : সাইকেল চালালে এক প্রকার পরিশ্রম হয়। এসময় শরীরে বেশি পরিমাণে অক্সিজেনের দরকার হয়। এই সময় শ্বাস-প্রশ্বাস প্রক্রিয়া দ্রুত চলে। তাই নিয়মিত সাইকেল চালানোর ফলে ফুসফুস ভালো থাকে এবং এর কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

পেশি ভালো থাকে : সাইকেল চালালে পায়ের পেশিতে বেশি চাপ পড়ে। এতে পায়ের ব্যায়াম হয়। নিয়মিত সাইকেল চালালে পায়ের পেশি সচল থাকে। পায়ের জোর বাড়বে। দ্রুত গতিতে সাইকেল না চালিয়ে মধ্যম গতিতে সাইকেল চালানো ভালো।

সূত্র : ইন্ডিয়া টাইমস

এসআর/

RTV Drama
RTVPLUS