logo
  • ঢাকা রোববার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭

প্রিয়জনকে চুম্বনই হতে পারে অকাল মৃত্যুর কারণ!

আপনিই কী আপনার প্রিয় মানুষকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিচ্ছেন? অবাক হওয়ার কিছু নেই। তবে এখনই এ নিয়ে জানার উপযুক্ত সময়। কদিন পর থেকেই শুরু হতে যাচ্ছে ভালোবাসার বিশেষ দিন। বিশেষ দিনগুলোয় তরুণ-তরুণীরা না বুঝে এমন অনেক কিছুই করে থাকেন যার খেসারত পরবর্তীতে দিতে হয়। এমনকি অকাল মৃত্যুর কারণও হতে পারে। গবেষণা জানলে হয়তো আপনার চোখ উপরে ওঠে যাবে। চুম্বন ধূমপানের থেকেও ভয়ানক এবং বেশি ক্ষতিকর। ২০১৭ সালে মেইল সংবাদ মাধ্যম এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে চুম্বন ধূমপানের থেকে বিপদজনক।

জানা গেছে, চুম্বন মাথা ও ঘাড়ে ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়াতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখে। গবেষকদের মতে, চুম্বনের মাধ্যমে হিউম্যান পাপিলোমা (এইচপিডি) নামক ভাইরাস স্থানান্তরিত হয়। এই ভাইরাস মূলত ওরাল সেক্সের মাধ্যমে মানুষের দেহে প্রবেশ করে থাকে। বিশেষ করে বলা যেতে পারে ‘ফ্রেঞ্চ কিস’র সময়।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, মানুষের ঘাড় ও গলাতে অবস্থিত পরিপাকনালীর অংশ এইচপিভি আক্রান্তদের সাধারণ মানুষদের থেকে ২৫০ বারের অধিক ক্যানসারের ঝুঁকি বৃদ্ধি করে। সাধারণতভাবে সার্ভিক্যাল ক্যানসারের (জরায়ু মুখের ক্যানসার) সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকলেও এটি নারী-পুরুষ উভয়কেই সংক্রমণ করতে পারে।

এ বিষয়ে অস্ট্রেলিয়ার মাথা ও ঘাড় বিশেষজ্ঞ ডাক্তার মাহিবান থমাস বলেছেন, যৌন আকাঙ্ক্ষার পাশাপাশি সাধারণ উত্তেজিত হওয়ার সময় চুম্বনেও এইচপিভি স্থানান্তরিত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এছাড়া ‘ফ্রেঞ্চ কিসিং’র মাধ্যমে তরুণ-তরুণীদের মধ্য এই ভাইরাস আরও বেশি ছড়ায়।

সূত্র : হেলথ লাইন

এসআর/এম

RTV Drama
RTVPLUS