logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি ২০২১, ৮ মাঘ ১৪২৭

শীতে ত্বকে মিষ্টিকুমড়া ব্যবহার করুন আর জাদু দেখুন

Use sweet pumpkin on the skin
ত্বকে মিষ্টিকুমড়া ব্যবহার
চলছে শীতকাল। এখন শীতের সঙ্গে ত্বকের দ্বন্দ্ব শুরু হয়েছে। এখনই উপযুক্ত সময় রুপচর্চার। এই সময় মিষ্টিকুমড়া দিয়েই আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে পারবেন।

মিষ্টি কুমড়ায় আছে ভিটামিন এ, সি, ই ও চার রকমের ভিটামিন বি (নায়াসিন, ফোলেট, রিবোফ্লাভিন, বি সিক্স)। আরও আছে আলফা ও বিটা ক্যারোটিন এবং জিঙ্ক, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়ামের মতো খনিজ উপাদান। 

মিষ্টিকুমড়া ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে, ব্রণের সমস্যা প্রতিরোধ ও প্রতিকার করার পাশাপাশি সূর্যের আলো ও পরিবেশ দূষণের ফলে ত্বকের যে ক্ষতি হয়, তা সারিয়ে তুলতে পারে। এমনকি এটি বলিরেখা দূর করতে কার্যকর।  

যেভাবে ব্যবহার করবেন

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য এক টেবিল চামচ মিষ্টিকুমড়ার পাল্পে এক চামচ আপেল সিডার ভিনেগার মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করুন। মিশ্রণটি ত্বকে মেখে ১০ থেকে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে উষ্ণ পানিতে ধুয়ে ফেলুন।

যাদের শুষ্ক ত্বক, তারা আর্দ্রতা ধরে রাখতে মিষ্টি কুমড়োর মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। দুই চামচ মিষ্টিকুমড়োর পাল্প, আধা চামচ মধু, এক চামচ দুধ,  দুই চামচ নারকেল তেল, এক চিমটি দারুচিনিগুঁড়া দিয়ে মিশ্রণটি তৈরি করুন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট মুখে লাগিয়ে উষ্ম পানিতে ধুয়ে ফেলুন। 

ত্বকের যৌবন ধরে রাখতে, বলিরেখা এবং ইউভি রশ্মিজনিত সমস্যা থেকে দূর করতে দুই টেবিল চামচ মিষ্টিকুমড়ার পাল্প, এক চামচ ডিমের সাদা অংশ, আধা চামচ লেবুর রস এবং আধা চামচ মধু নিয়ে মিশ্রণ করুন। সপ্তাহে তিন দিন রাতে ঘুমানোর আগে ব্যবহার করুন।  

ব্রণের সমস্যার জন্য এক চামচ মিষ্টিকুমড়ার পাল্প, দুই চামচ টক দই, আধা চামচ ওটসের গুঁড়া, আধা চামচ মধু আর এক চিমটি দারুচিনিগুঁড়া দিয়ে মিশ্রণটি তৈরি করুন। ১০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রেখে উষ্ণ পানিতে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত দুই দিন এভাবে ব্যবহার করুন।

সূত্র- জিনিউজ

জিএ

RTV Drama
RTVPLUS