logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৬

চীনের সঙ্গে অধিকাংশ সীমান্ত বন্ধ করে দিলো হংকং

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৭:০৮
Hong Kong shuts most China crossings over virus as medics strike
ছবি সংগৃহীত
এক মাসের বেশি সময় আগে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে চীনের মূল ভূখণ্ডের বাইরে দ্বিতীয় মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে হংকংয়ে। এমন পরিস্থিতিতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়া এই ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে হংকংয়ের নেতা ক্যারি লাম সোমবার এক ঘোষণায় জানিয়েছেন, চীনের মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে ১৩টি সীমান্ত পারাপারের মধ্যে ১১টি বন্ধ করে দেয়া হবে। খবর সিএনবিসি, ইয়াহু নিউজের।

করোনাভাইরাসের সম্ভাব্য বিস্তার ঠেকাতে চীনের মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে সীমান্ত পারাপার বন্ধ করে দিতে আগে থেকেই বিক্ষোভের হুমকি দিয়ে রেখেছিল হংকংয়ের হাজার হাজার মেডিকেল কর্মী। শেষ পর্যন্ত সোমবার বিক্ষোভকারীদের দাবির কাছে নতি স্বীকার করে হংকংয়ের সরকার।

মেডিকেল কর্মীদের এই আন্দোলনকে ‘অত্যন্ত খারাপ’ উল্লেখ করে ক্যারি লাম সোমবার বলেন, তাদের বিক্ষোভের কারণে রোগীরা ঝুঁকির মুখে পড়েছে। এর আগে তিনি বলেছিলেন যে, চীনের মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে পুরোপুরি সীমান্ত বন্ধ করে দিলে তা ‘বৈষম্যমূলক’ হবে।

আধা-স্বায়ত্ত্বশাসিত হংকংয়ে এখন পর্যন্ত ১৫ জন এই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। প্রায় এক মাস আগে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে এখন পর্যন্ত অন্তত ৪২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। দুজন ছাড়া বাকি সব মৃত্যুই চীনে হয়েছে। চীনের মূল ভূখণ্ডের বাইরে ফিলিপাইন ও হংকংয়ে একজন করে ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে চীনের মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে সব সীমান্ত বন্ধ করে দেয়ার দাবি হংকংয়ে জোরদার হচ্ছে। ২০০৩ সালে সার্স ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর ৩০০ জন হংকংবাসী নিহত হয়। আর তখন সেটি গোপন করার চেষ্টা করে বেইজিং। এমন ঐতিহাসিক অবিশ্বাসের কারণে সোমবার থেকে পাঁচদিনের কর্মবিরতি শুরু করে শত শত মেডিকেল কর্মী।

মেডিকেল কর্মীদের ইউনিয়ন জানিয়েছে, বিক্ষোভ শুরু করা মেডিকেল কর্মীদের প্রথম ব্যাচ ‘কম গুরুত্বপূর্ণ’ কর্মী। তবে সরকারের সবশেষ সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করে আজ মঙ্গলবার থেকে ডাক্তার ও নার্সদেরও কর্মবিরতি যাওয়ার কথা রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ : করোনাভাইরাস

আরও
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ
  • আন্তর্জাতিক এর পাঠক প্রিয়