logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৮ ফাল্গুন ১৪২৬

কেরালার পর পাঞ্জাব বিধানসভায় সিএএ বিরোধী প্রস্তাব পাস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৮ জানুয়ারি ২০২০, ০৯:৫৬
Punjab Assembly passes anti-CAA proposal
ছবি সংগৃহীত
ভারতের পাঞ্জাব বিধানসভায় সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বা সিএএ বিরোধী প্রস্তাব পাস হয়েছে। বিধানসভার বিশেষ অধিবেশনে গতকাল শুক্রবার ওই প্রস্তাব পাস হয়। পাঞ্জাবের মন্ত্রী ব্রহ্ম মহিন্দ্র বিধানসভায় প্রস্তাবটি পেশ করেন।

সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকার যে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন তৈরি করেছে তার বিরুদ্ধে এ নিয়ে দুটি রাজ্য বিধানসভা প্রস্তাব পাস করলো। এর আগে সিপিএম নেতৃত্বাধীন কেরালার এলডিএফ সরকার বিধানসভায় সিএএ প্রত্যাহারের দাবিতে প্রস্তাব পাস করেছিল। এবার পাঞ্জাবের কংগ্রেস সরকারও একই পথে হাঁটলো।

কংগ্রেসশাসিত পাঞ্জাব সরকারের মন্ত্রী ব্রম্ম মহিন্দ্রা বিধানসভায় সিএএ বিরোধী প্রস্তাব পেশ করতে গিয়ে বলেন,  নতুন নাগরিকত্ব আইন ঘিরে দেশজুড়ে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। দেশের সর্বত্র বিক্ষোভ চলছে। পাঞ্জাবেও সিএএ বিরোধী বিক্ষোভ হয়েছে, তবে তা হয়েছে শান্তিপূর্ণভাবে। এবং এতে সমাজের সব অংশের মানুষ অংশগ্রহণ করেছে।

পাঞ্জাব বিধানসভায় পেশ করা প্রস্তাবে বলা হয়, সিএএ দেশের সংবিধান এবং এর মূল চেতনার পরিপন্থী। এটি দেশের নির্দিষ্ট ধর্মের মানুষদের পরিচিতি নষ্ট করার প্রয়াস। এই আইনের মাধ্যমে অভিবাসী মানুষকে বিভক্ত করার চিন্তাভাবনা রয়েছে এবং এটি সাম্যের অধিকার বিরোধী।

প্রস্তাবটিতে আরও বলা হয়েছে, জাতীয় নাগরিকপঞ্জি বা এনআরসি এবং জাতীয় জনসংখ্যা নিবন্ধন বা এনপিআর সম্পর্কে লোকদের সন্দেহ ও দ্বিধাদ্বন্দ্ব রয়েছে, এগুলো দূর করে একে পাস করা উচিত। সিএএ’তেও পরিবর্তন করা উচিত বলেও প্রস্তাবে বলা হয়।

পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং সম্প্রতি বলেছিলেন, তার সরকার এই বিভাজনমূলক আইন কার্যকর করতে দেবে না। তিনি বলেন, এই আইনটি এনআরসি এবং এনপিআরের পাশাপাশি ভারতীয় সংবিধান লঙ্ঘন করে। অমরিন্দর সিং বলেন,  তিনি সংখ্যালঘুদের নাগরিকত্ব দেয়ার বিরোধী নন, কিন্তু তিনি ‘সিএএ’তে মুসলিমসহ কিছু ধর্মীয় সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে বৈষম্যের বিরোধী।

মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন সম্পর্কে সাফ জানান, ভারতের ধর্মনিরপেক্ষ অবকাঠামো সবসময়ই শক্তিশালী ছিল। কিন্তু কেউ যদি এটিকে বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টা করেন তবে কংগ্রেসের পাশাপাশি এদেশের মানুষও এর বিরোধিতা করবে। বিজেপি এবং তার মিত্ররা এর পরিণতির কথা চিন্তা না করেই এই বুনিয়াদকে ধ্বংস করতে ব্যস্ত বলেও মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং মন্তব্য করেন।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ
  • আন্তর্জাতিক এর পাঠক প্রিয়