logo
  • ঢাকা বুধবার, ২২ জানুয়ারি ২০২০, ৯ মাঘ ১৪২৭

সিএএ-এনআরসির প্রতিবাদে আন্দোলনে নামছেন মমতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৬:২৭ | আপডেট : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৬:৩৭
মমতা ব্যানার্জি
ছবি সংগৃহীত
নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) ও  জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি)-র প্রতিবাদে এবার গণ-আন্দোলনে নামছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। রোববার থেকে বুধবার পর্যন্ত টানা চারদিন কলকাতাসহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে প্রতিবাদ মিছিলের ডাক দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

দিঘায় গিয়ে মমতা বলেন, ‘নো এনআরসি, নো ক্যাব’। আইন পাস হলেও আমাদের সরকার তা কার্যকর করবে না। সকলকে বলছি, ধর্ম-বর্ণ-জাতি নির্বিশেষে সকলে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে প্রতিবাদ করুন। সব রাজ্যে গণ-আন্দোলন করুন। বাংলাতেও গণ-আন্দোলন গড়ে তুলুন।

এ প্রসঙ্গে দিঘায় শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আগামী সোমবার আমরা মিছিল করবো। আম্বেদকরের মূর্তির সামনে দুপুর ১টায় জমায়েত করবো। এরপর গান্ধী মূর্তির পাদদেশ থেকে জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ি পর্যন্ত মিছিল করবো। মঙ্গলবার দক্ষিণ কলকাতায় মিছিল করা হবে। সেদিন যাদবপুর ৮বি থেকে ১টায় মিছিল শুরু হবে। মিছিল যাবে গান্ধী মূর্তির পাদদেশ পর্যন্ত। বুধবারও আমরা মিছিল করবো। কোথায় করবো পরে জানাবো। রোববার জেলায় জেলায় সব ধর্ম-বর্ণের মানুষকে সঙ্গে নিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে মিছিল করবে তৃণমূল। ব্লকে ব্লকে মিছিল করা হবে।

সিএএ-এনআরসি ইস্যুতে মোদি সরকারকে বিঁধে মমতা বলেন, সিএএ-এনআরসি নিয়ে অনেক বুঝিয়েছি। বেড়ালের গলায় ঘণ্টা বাজিয়ে বোঝানোর চেষ্টা করেছি। কতবার বলেছি, আগুন নিয়ে খেলতে যেয়ো না, শোনেনি। আসাম, মেঘালয়, ত্রিপুরাসহ সব রাজ্যের আলাদা আবেগ রয়েছে। গায়ের জোরে বলছে সিএএ-এনআরসি করবে। আমরা করতে দেব না। যে বিজেপি করবে, তাকেই শুধু নাগরিকত্ব দেয়া হবে? বাকিদের না? আসামে আগুন জ্বলছে দেখুন, কী অত্যাচার চলছে! বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক কোথায় দাঁড়িয়ে আজ! বিজেপিকে আক্রমণ করে মমতা আরও বলেন, বিজেপি এখন ওয়াশিং মেশিন। বিজেপিতে গেলে সাফ, না হলে জেলে।

বিজেপিকে নিশানা করে এদিন মমতা আরও বলেন, সাম্প্রদায়িকতার রং নিয়ে খেলছে বিজেপি। দেশজুড়ে অস্থিরতা চলছে। দেশের অর্থনীতি কালো মেঘে ছেয়ে গেছে। বেকারত্ব বাড়ছে, দারিদ্রতা বাড়ছে। একটা সরকারের কাজ মানুষের উন্নয়ন করা। আমরা দেনা শোধ করেও সামাজিক কর্মসূচি যাতে ভাল করে চলে, সেদিকে খেয়াল রাখি। আমরা কাজ দিয়ে তা প্রমাণ করেছি।

উল্লেখ্য, এনআরসি-সিএএ ইস্যুতে প্রথম থেকেই তীব্র বিরোধিতা জানিয়ে আসছে মমতা বাহিনী। এর আগে কলকাতার রাজপথে প্রতিবাদ মিছিলেও হেঁটেছেন মমতা। এনআরসি-সিএএ ইস্যুকে হাতিয়ার করেই সদ্যসমাপ্ত উপনির্বাচনে তিনটি আসনে জয় তুলে নিয়েছে ঘাসফুল শিবির, এমনটাই ব্যাখ্যা রাজনৈতিক মহলের একাংশের। সেই প্রেক্ষিতে ক্যাব-সিএএ ইস্যুতে যেভাবে গণ-আন্দোলনের ডাক দিলেন মমতা, তা রাজনৈতিকভাবে তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

এ/ এমকে 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ
  • আন্তর্জাতিক এর পাঠক প্রিয়