logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭

করোনা আপডেট

  •     গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃত্যু ৩০ জন, আক্রান্ত ১৩৫৬ জন, সুস্থ হয়েছেন ১০৬৬ জন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

ঘুম থেকে জেগেই দেখলেন প্লেনে তিনি একা, অন্ধকার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ২৪ জুন ২০১৯, ১৭:৩০ | আপডেট : ২৫ জুন ২০১৯, ১৫:০৬
এয়ার কানাডা
এয়ার কানাডার একটি বিমানে চড়ে কিউবেক সিটি থেকে টরন্টো যাচ্ছিলেন টিফানি অ্যাডামস নামের এক নারী। যাত্রা পথে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন তিনি, কিন্তু প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় তার ঘুম ভেঙে যায়। ঘুম থেকে উঠে দেখেন চারদিকে ঘুটঘুটে অন্ধকার এবং বিমানে তিনি একাই আছেন।

নিজের ভয়াবহ এই অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে ফেসবুকে এক স্ট্যাটাস দিয়েছেন টিফানি। গত ৯ জুন কিউবেক সিটি থেকে টরন্টো আসার ৯০ মিনিটের বিমান যাত্রার মাঝপথে ঘুমিয়ে পড়েন এই নারী।

তিনি লিখেন, বিমান অবতরণ করার কয়েক ঘণ্টা পর আমি প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় মাঝরাতে জেগে উঠি। তখনও আমার সিটবেল্ট বাঁধা এবং চারদিকে পুরোপুরি অন্ধকার।

প্রথমে ঘাবড়ে গেলেও পরে নিজেকে সামলে নেন টিফানি। তারপর অন্ধকারে হাতড়ে মোবাইল ফোন খুঁজে বের করে বান্ধবী ডিয়ান্না নোয়েল-ডেলকে ফোন দিয়ে পুরো বিষয়টি জানান। কিন্তু এর কিছুক্ষণ পর তার মোবাইল ফোনের চার্জ শেষ হয়ে যায়। তবে বিমানের সব ইউএসবি পোর্টের সঙ্গে লাগিয়েও মোবাইল ফোনে চার্জ দিতে পারেননি টিফানি। কারণ বিমানে কোনও বিদ্যুৎ ছিল না।

নিজের ওই অভিজ্ঞতাকে ‘দুঃস্বপ্ন’ উল্লেখ করে টিফানি বলেছেন, ওই সময় তিনি নিঃশ্বাস নেয়া এবং তার ভীতিকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন। এসময় টিফানি বিমানের ককপিট থেকে খুঁজে পাওয়া একটি টর্চ লাইটের মাধ্যমে ‘এসওএস সিগন্যাল’ দেয়ার চেষ্টা করেন বলেও জানান।

পরে একজন লাগেজ গাড়িবহনকারী অপারেটর টিফানির টর্চের আলো দেখতে পান। টিফানি বলেন, ওই ব্যক্তি আমাকে অবাক হয়ে জিজ্ঞাসা করেছিল কীভাবে তারা আমাকে বিমানে ফেলে গেছে।

টিফানি বলেন, পরে এয়ার কানাডা আমাকে একটি লিমোজিনে করে একটি হোটেলে পৌঁছে দিতে চায়। কিন্তু আমি বাড়িতে ফেরার ব্যাপারেই অনড় থাকি।

এদিকে এয়ার কানাডা ৯ জুনের ওই ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে এটি তদন্তের ঘোষণা দিয়েছে।

এ/ এমকে

RTVPLUS
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ২৪২১০২ ১৩৭৯০৫ ৩১৮৪
বিশ্ব ১৮২৫২২৭৫১১৪৫৫৭৮০৬৯৩১১৪
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ
  • আন্তর্জাতিক এর পাঠক প্রিয়