logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬

হংকংয়ের পুলিশ সদরদপ্তর ঘেরাও বিক্ষোভকারীদের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ২২ জুন ২০১৯, ১৩:০৪
ছবি: সংগৃহীত
হংকংয়ে প্রত্যর্পণ বিল চূড়ান্তভাবে বাতিলের দাবিতে হাজার হাজার মানুষ দেশটির পুলিশের সদরদপ্তর ঘেরাও করেছে। তবে পুলিশ তাদের শান্তিপূর্ণভাবে সেখান থেকে সরে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে। পুলিশ বলছে, বিক্ষোভকারীদের উপস্থিতির কারণে জরুরি সেবা ‘মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত’ হবে।

সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে লাখ লাখ মানুষ প্রস্তাবিত এই বিলের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছে। ওই বিক্ষোভে পুলিশের সঙ্গে প্রতিবাদকারীদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়।

আন্দোলনকারীদের চাপের মুখে ইতোমধ্যে ওই বিলটি স্থগিত করা হয়েছে। সমালোচকরা বলছেন, অপরাধীদের চীনে ফেরত পাঠানোর লক্ষ্যে এই বিল পাস হলে তা হংকংয়ের বিচারিক স্বাধীনতা খর্ব করবে।

‘এক দেশ, দুই ব্যবস্থা’- এই নীতির অধীনে ১৯৯৭ সাল থেকে চীনের অংশ হংকং। ফলে চীন হংকংকে স্বাধীন হিসেবে মনে করে না।

ওই প্রত্যর্পণ বিলটি চূড়ান্তভাবে বাতিলের ব্যাপারে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বেঁধে দেয়া সময়সীমা সরকার উপেক্ষা করার একদিন পর আবারও রাস্তায় নামলো বিক্ষোভকারীরা। এর আগে শুক্রবার বিক্ষোভকারীরা লেজিসলেটিভ কাউন্সিল কমপ্লেক্স বা সরকারের সদরদপ্তরের বাইরে জড়ো হতে শুরু করে। কিন্তু পরে তারা পুলিশের সদরদপ্তর ঘিরে ফেলে।

বিক্ষোভকারীদের মধ্যে ছাত্র আন্দোলন কর্মী রয়েছেন জোশুয়া অং। তিনি ২০১৪ সালে গণতন্ত্রপন্থি আন্দোলনের অন্যতম একজন মুখ ছিলেন। ২০১৪ সালের ওই বিক্ষোভের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন অভিযোগে গত মে মাসে তাকে কারাগারে ঢোকানো হয়েছিল। তবে চলতি সপ্তাহেই তিনি মুক্তি পেয়েছেন।

সাম্প্রতিক বিক্ষোভের সময় গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তিদের সব অভিযোগ তুলে নিতে পুলিশের প্রতি আহ্বান জানিয়ে শুক্রবার এক টুইট করেন অং।

এদিকে কিছু বিক্ষোভকারী হংকংয়ের রাজস্ব টাওয়ারের বাইরেও জড়ো হয়েছে। হংকংয়ের শ্রম বিভাগ জানিয়েছে, বিক্ষোভকারীদের কারণে ভবনটির বেশ কিছু সেবা সাময়িক সময়ের জন্য স্থগিত থাকবে।

অন্যদিকে সরকারি এসব ভবনের বাইরে অবস্থান নেয়া বিক্ষোভকারীদের মধ্যে কেউ কেউ ঠাণ্ডা থাকার জন্য ভিড়ের ওপর পানি ছুঁড়েছে। আর বাকিরা গান গেয়ে নিজেদের ‍উদ্দীপ্ত রাখার চেষ্টা করেছে।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ
  • আন্তর্জাতিক এর পাঠক প্রিয়