logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬

মালয়েশিয়া ৩ হাজার টন প্ল্যাস্টিক বর্জ্য ফেরত পাঠাবে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ৩০ মে ২০১৯, ২০:৫৯ | আপডেট : ৩০ মে ২০১৯, ২১:০৭
ছবি: যুক্তরাজ্যের সংবাদ সংস্থা রয়টার্স

মালয়েশিয়া তিন হাজার টনের বেশি প্ল্যাস্টিক বর্জ্য যেসব দেশ থেকে এসেছে, সেসব দেশের কাছে ফিরিয়ে দেবে বলে জানিয়েছেন দেশটির জ্বালানি, প্রযুক্তি, বিজ্ঞান, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী ইয়েও বি ইন।

মঙ্গলবার তিনি একথা জানান বলে জানিয়েছে যুক্তরাজ্যের সংবাদ সংস্থা রয়টার্স। সংবাদ সংস্থাটির প্রতিবেদনে বলা হয়, এশিয়ার সবশেষ দেশ হিসেবে মালয়েশিয়া ধনী দেশগুলোর বর্জ্য ফেরত পাঠানোর কথা জানালো।

এদিন পোর্ট ক্ল্যাংয়ে পরিদর্শনের পর ইয়েও সাংবাদিকদের জানান, ৬০ কন্টেইনার বর্জ্য আমাদের পরিবেশ বিষয়ক আইন অমান্য করে অবৈধভাবে আমদানি করা হয়েছে। তাই এগুলো যেসব দেশ থেকে আমদানি করা হয়েছে, সেসব দেশকে ফিরিয়ে দেয়া হবে।

এতে বলা হয়, চীন প্ল্যাস্টিক বর্জ্য আমদানি নিষিদ্ধ করার পর গত বছর এসব বর্জ্যের প্রধান গন্তব্যে পরিণত হয় মালয়েশিয়া। এর আগে চীনে প্রতি বছরে সাত মিলিয়ন টনের বেশি প্ল্যাস্টিক বর্জ্য আমদানি করা হতো।

এদিকে মালয়েশিয়ায় কয়েক ডজন রিসাইক্লিং ফ্যাক্টরি গড়ে উঠেছে। এগুলোর বেশির ভাগই লাইসেন্স ছাড়াই পরিচালিত হয়। এগুলোর কারণে পরিবেশগত সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে বলে অভিযোগ স্থানীয় কমিউনিটিগুলোর।

মালয়েশিয়ার কর্মকর্তারা এসব বর্জ্যের উৎসস্থল হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, ফ্রান্স, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া ও ব্রিটেনসহ কমপক্ষে ১৪টি দেশকে চিহ্নিত করেছেন। ইতোমধ্যে মালয়েশিয়া স্পেনকে পাঁচ কন্টেইনার প্ল্যাস্টিক বর্জ্য ফিরিয়ে দিয়েছে।

গত সপ্তাহে ফিলিপিন্সের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে তার সরকারকে একটি প্রাইভেট শিপিং কোম্পানি ভাড়া করে ৬৯ কন্টেইনার বর্জ্য কানাডায় ফেরত পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। যদি দেশটি নিতে আপত্তি জানায়, তবে এগুলো দেশটির জলসীমার মধ্যে রেখে আসার নির্দেশ দেন তিনি।

কে/এমকে

bestelectronics bestelectronics
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়