logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬

ট্রাম্পকে উসকানি দেবেন না, ইরানকে ব্রিটেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ২২ মে ২০১৯, ১৩:০১ | আপডেট : ২২ মে ২০১৯, ১৩:০৮
ব্রিটিশ ও ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী
কয়েক সপ্তাহ ধরে যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এক দেশ অপর দেশকে যুদ্ধের ব্যাপারে হুঁশিয়ারি দিয়ে যাচ্ছে। ট্রাম্প প্রথমে যুদ্ধের ব্যাপারে অনাগ্রহের কথা জানালেও রোববার হঠাৎ করেই ইরানকে যুদ্ধের ব্যাপারে হুমকি দেন তিনি। ইরানও জানায়, হামলা হলে চুপ করে থাকবে না তারা।

whirpool
তবে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে উসকানি না দিতে সতর্ক করে দিয়েছেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেরেমি হান্ট। সোমবার জেনেভায় জাতিসংঘের এক কনফারেন্সের ফাঁকে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমি ইরানিদের বলবো যুক্তরাষ্ট্রের মনোবলকে খাটো করে দেখবেন না।

হান্ট বলেন, তারা (যুক্তরাষ্ট্র) ইরানের সঙ্গে যুদ্ধ চায় না তবে তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন। কিন্তু যদি মার্কিন স্বার্থে আঘাত করা হয়, তারা পাল্টা জবাব দেবে। এটাই ইরানিদের খুব সতর্কতার সঙ্গে চিন্তা করতে হবে।

এদিকে তেহরান ও ওয়াশিংটনের মধ্যে উত্তেজনা কমাতে বিভিন্ন দেশ ইতোমধ্যেই সাহায্য করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে। এরই অংশ হিসেবে সোমবার সকালে ওমানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইউসুফ বিন আলাউয়ি বিন আব্দুল্লাহ তেহরান সফর করেন।

অতীতে ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে আলোচনার পথ তৈরিতে সহায়তা করেছেন ওমানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা ইরনা জানিয়েছে, তেহরান সফরে ওমানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফের সঙ্গে আলোচনা করেছেন।

তেহরান ও ওয়াশিংটনের মধ্যকার উত্তেজনা নিরসনে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছে ইরানপন্থি ইরাকি রাজনৈতিক নেতারা। এদিকে ইরান ও যুক্তরাষ্ট্রের এই দ্বন্দ্বের মধ্যে ইরাককে টেনে আনার ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছেন ইরাকের রাজনৈতিক নেতারা। এ ধরনের পরিস্থিতি তৈরি করা হলে তারা ইরাকি জনগণের শত্রু হবে বলেও সতর্ক করেন তারা।

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়