logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬

পোপ নতজানু হয়ে দক্ষিণ সুদানের নেতাদের পায়ে চুমু খেলেন কেন?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১২ এপ্রিল ২০১৯, ২৩:৩২
ছবি: যুক্তরাজ্যের গণমাধ্যম ডেইলি মেইল অনলাইন

দক্ষিণ সুদানের প্রেসিডেন্ট সালভা কির মায়ার্দিত এবং বিরোধী দলের নেতা রিয়েক মাচার বৃহস্পতিবার একটি প্রতিনিধি দলসহ পোপ ফ্রান্সিসের বাসভবন সান্তা মার্তায় গেলে ক্যাথলিক চার্চের প্রধান নতজানু হয়ে তাদের পায়ে চুমু খান।

শুক্রবার প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে একথা জানায় যুক্তরাজ্যের গণমাধ্যম ডেইলি মেইল অনলাইন।

এতে বলা হয়, আফ্রিকার দেশটিতে সংকটাপন্ন শান্তি প্রক্রিয়াকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানিয়ে একে একে তাদের পায়ে চুমু খান পোপ।

দক্ষিণ সুদানের রাজনৈতিক ও ধর্মীয় নেতাদের উদ্দেশে পোপ বলেন, আমি আন্তরিক আশাবাদ ব্যক্ত করছি যে শত্রুতার অবসান এবং যুদ্ধবিরতি সমর্থিত হবে। এছাড়া রাজনৈতিক ও জাতিগত বিভাজনকে পাশ কাটিয়ে শুরু থেকেই দেশ গঠনের স্বপ্নে বিভোর নাগরিকরা স্থায়ী শান্তি পাবে।

দুই দিনের ধর্মীয় উৎসব উপলক্ষে ভ্যাটিকানে যান দক্ষিণ সুদানের নেতারা। প্রতিনিধি দলে কিরের তিন ভাইস প্রেসিডেন্টসহ দেশটির যাজকরা ছিলেন।

ভাইস প্রেসিডেন্ট রেবেকা নায়ান্ডেং গ্যারাং জানান, ফ্রান্সিসের এমন আচরণ তাকে অবাক করেছে। তিনি বলেন, আমি এর আগে এমনটি কখনও দেখিনি। আমার চোখ থেকে অঝোরে অশ্রু ঝরছিল।

সুদানের কাছ থেকে ২০১১ সালে স্বাধীনতা অর্জন করে দক্ষিণ সুদান। কিন্তু ২০১৩ সালে দেশটিতে রক্তক্ষয়ী গৃহযুদ্ধ হয়। এতে কমপক্ষে চার লাখ মানুষের মৃত্যু হয়।

গত সেপ্টেম্বরে সুদানের রাজধানী খার্তুমে সই হওয়া একটি শান্তিচুক্তি অনুসারে, আগামী ১২ মে দক্ষিণ সুদানের বিরোধী নেতা মাচার দেশে ফিরতে এবং কিরের ডেপুটি হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারবে বলে আশা করা হচ্ছে।

কে/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়