• ঢাকা বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৮ ফাল্গুন ১৪২৫

টুইটারে দ্রুততম ট্রেনের ‘নকল’ ভিডিও পোস্ট, বিতর্কে ভারতের রেলমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:৪৫
ভারতের দ্রুততম ট্রেন বন্দে ভারত এক্সপ্রেস। আসল নাম ট্রেন-১৮। সর্বোচ্চ ২০০ কিলোমিটার গতিতে চলবে এই ট্রেন। কর্মকর্তাদের মতে, প্রথমে ১০০ কিলোমিটার গতিতে চলা শুরু করবে। তারপর গতিসীমা বাড়বে ধীরে ধীরে। কমবেশি ১৫০-১৮০ কিলোমিটার গতিতে চলবে এই ট্রেনটি।

মোদি সরকারের মেক ইন ইন্ডিয়া প্রকল্পের অধীনেই ট্রেন-১৮ তৈরি হয়েছে। রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের দাবি, এই ট্রেনটি ভারতের গর্ব। কিন্তু এই টুইট করতে গিয়েই বিপাকে পড়েছেন রেলমন্ত্রী।

১০ ফেব্রুয়ারি রেলমন্ত্রী তার নিজস্ব টুইটার হ্যান্ডলে ট্রেন ১৮-এর একটি ভিডিও পোস্ট করেন। ক্যাপশনে লেখা ছিল, ‘এটা একটা পাখি… একটা বিমান… দেখুন ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’র উদ্যোগে নির্মিত ভারতের প্রথম সেমি-হাইস্পিড ট্রেন, বন্দে ভারত এক্সপ্রেস বিদ্যুৎ গতিতে ছুটে চলেছে।’

শুধু টাইটারে নয়, নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক অ্যাকাউন্টেও এই ভিডিওটি পোস্ট করেন পীযূষ গোয়েল। এরপরই অভিযোগ ওঠে, পীযূষ গোয়েল ট্রেন-১৮ এর গতি সংক্রান্ত যে ভিডিওটি নিজের সরকারি টুইটার হ্যান্ডেলে পোস্ট করেছেন তা আসল নয়। ট্রেন-১৮ এর আসল গতির দ্বিগুণ দেখানো হয়েছে ওই ভিডিওটিতে।

কিন্তু তার ভিডিও পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গে তা ভাইরাল হয়ে যায়। যদিও ভারতীয় বিভিন্ন গণমাধ্যম দাবি করেছে, এটি আসল ভিডিও নয়। পরে ট্রেন-১৮ এর ট্রায়াল রানের ‘আসল’ ভিডিওটিও পোস্ট করে বেশ কয়েকটি গণমাধ্যম।

পীযূষ গোয়েলের পোস্ট করা ভিডিওটিতে দেখা যায়, ট্রেনটির গতি আসল ভিডিওটির তুলনায় দ্বিগুণ। এরপরই নেট দুনিয়ায় প্রবল কটাক্ষের শিকার হন রেলমন্ত্রী। আসরে নামে কংগ্রেসও। ‘আসল’ ও ‘নকল’ ভিডিও দুটিকে পোস্ট করে কংগ্রেস। শুধু ভিডিও পোস্ট করেই ক্ষান্ত হয়নি কংগ্রেস; সঙ্গে লিখে দেয়, ট্রেন-১৮ এর থেকেও জোরে ছোটে একটাই জিনিস, সেটা হল দুর্নীতিবাজদের মিথ্যা।

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়