logo
  • ঢাকা শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

চুরি রুখতে চোর নিয়োগের বিজ্ঞাপন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ০৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৫:৫৬ | আপডেট : ০৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৬:০৭
প্রতীকী ছবি

পাঁচ বছর আগে পোশাকের দোকান খুলেছেন। কিন্তু উৎসবের সময় এলেই বেড়ে যায় চোরের উৎপাত। কোনোভাবেই চুরি রুখতে পারায় লাভের বদলে হয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত। তাই চুরি রুখতে চোর নিয়োগের বিজ্ঞাপন দিয়েছেন একজন ব্রিটিশ নারী।

‘অডিটি সেন্ট্রাল’ ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই নারী বার্কডটকম নামে কাজের একটি সাইটে বিজ্ঞাপন দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপনে কাজের শর্ত হিসেবে বলা হয়েছে, চোরকে ওই নারীর দোকানে এসে চুরি করতে হবে। আর এজন্য প্রতি ঘণ্টার পারিশ্রমিক হিসেবে তিনি পাবেন পঞ্চাশ পাউন্ড। বাংলাদেশি টাকার যার মূল্য প্রায় পাঁচ হাজার তিনশ ৩০ টাকা।

শুধু তাই নয়। চুরি করা জিনিস থেকে, চাইলে তিনটি জামাকাপড়ও রাখতে পারবেন ওই চোর।

আরও আজব ব্যাপার হলো একবার নয়, বরং কয়েক সপ্তাহের মধ্যে বেশ কয়েকবার ওই নারীর দোকানে চুরি করতে হবে ওই চোরকে। এরপর ওই চোরকে একটি রিপোর্টও দিতে হবে। সেই রিপোর্টে লিখতে হবে চোরটি কীভাবে এবং কতগুলো জিনিস চুরি করেছে।

তবে ওই নারী যে যে মজা করার জন্য এই বিজ্ঞাপন দেননি, তা বোঝানোর জন্য রীতিমতো ব্যাখ্যাও দিয়েছেন।

তার ভাষায়, বহু বছর ধরেই উৎসবের মৌসুমে বিপদের মুখে পড়ছেন তিনি। কারণ এই সময়েই তার দোকানে চুরির হার বেড়ে যায়। এ বছর তিনি আর কোনও ঝুঁকি নিতে চান না।

ওই নারী লিখেন, আমার একজন পেশাদারকে চাই যে আমার স্টোরের নিরাপত্তার ফাঁকফোকরগুলো বের করে দেবে। চুরি করলেই সেগুলি বোঝা যাবে।

তিনি লিখেন, ২০১৩ সালে আমি দোকান খুলেছি। তারপরে ক্রিসমাসের সময়তেই চুরির হার এতো বেড়ে যায় যে, আমার খুব লোকসান হয়।

তাই পেশাদার চোরের সাহায্যে তিনি বুঝতে পারবেন কীভাবে তার দোকানে চুরি হয়। আর সে অনুযায়ী ঢেলে সাজাবেন নিরাপত্তা ব্যবস্থাও।

বিজ্ঞাপন দিয়ে ওই নারী সাড়া পেয়েছেন কিনা তা জানা যায়নি। তবে তার এমন বিজ্ঞাপন কিন্তু রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গেছে।

আরও পড়ুন :

 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়