• ঢাকা রোববার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১
logo

রাইসি নিহত: পুতিন-এরদোয়ানসহ বিশ্বনেতাদের শোক 

আন্তর্জাতকি ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ২০ মে ২০২৪, ১৭:১৩

ইরানের পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশে হেলিকপ্টার বিধ্বস্তের ঘটনায় ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আবদুল্লাহিয়ান নিহতসহ তাদের সঙ্গীরা হওয়ায় শোক জানিয়েছেন বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান।

শোক জানানো বিশ্বনেতাদের মধ্যে রয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, চীনের প্রেসিডেন্ট সি জিনপিং, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ।

রোববার ইরানের পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশের জোলফা এলাকার কাছে হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়। হেলিকপ্টারে ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি, পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দোল্লাহিয়ানসহ দেশটির কয়েকজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ছিলেন। এ ঘটনায় ইরানের প্রেসিডেন্ট, পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ সব আরোহী নিহত হয়েছেন বলে আজ সোমবার নিশ্চিত হওয়া যায়।

শোকবার্তায় রাইসিকে একজন অসামান্য রাজনীতিবিদ হিসেবে বর্ণনা করেন রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন। তিনি বলেন, রাইসির মৃত্যু একটি অপূরণীয় ক্ষতি।

রাইসির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন চীনের প্রেসিডেন্ট সি। রাইসির মর্মান্তিক মৃত্যুকে ইরানের জনগণের জন্য একটি বড় ক্ষতি বলে বর্ণনা করেন তিনি।

রাইসির মর্মান্তিক মৃত্যুতে ‘গভীরভাবে শোকাহত’ বলে জানিয়েছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্ত্র মোদি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেওয়া এক পোস্টে মোদি লিখেছেন, তার (ইব্রাহিম রাইসি) পরিবার এবং ইরানের জনগণের প্রতি আমার আন্তরিক সমবেদনা। ভারত এই দুঃখের সময়ে ইরানের পাশে আছে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক পোস্টে তিনি বলেছেন, আমি এবং পাকিস্তানের সরকার ও জনগণ এই ভয়ানক ক্ষতির জন্য ইরানি জাতির প্রতি আমাদের গভীর সমবেদনা ও সহানুভূতি প্রকাশ করছি। শহীদদের রুহ বেহেশতে শান্তিতে থাকুক। মহান ইরানি জাতি তাদের প্রথাগত সাহসের মাধ্যমেই এই শোক কাটিয়ে উঠবে। মর্মান্তিক এই ঘটনায় পাকিস্তান একদিনের জন্য শোক পালন করবে পাকিস্তান তার পতাকা অর্ধনমিত করবে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানি লিখেছেন, বেদনাদায়ক হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি, পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আবদুল্লাহিয়ান এবং অন্যান্য কর্মকর্তাদের মৃত্যুতে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সরকার ও জনগণের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা এবং তাদের জন্য মহান আল্লাহর রহমত ও ক্ষমা প্রার্থনা করছি।

ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মাদ শিয়া আল-সুদানি এক বিবৃতিতে বলেছেন, দুর্ঘটনায় ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি, পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আবদুল্লাহিয়ানের মৃত্যুতে আমরা গভীর বিষাদের সঙ্গে পেয়েছি। বেদনাদায়ক এই সময়ে আমরা ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আলী খামেনি এবং ইরানি জাতি, দেশটির সরকার ও জনগণের প্রতি আমাদের আন্তরিক সমবেদনা ও সহানুভূতি প্রকাশ করছি।

আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভও রাইসির সঙ্গে ঘটে যাওয়া ঘটনার বিষয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তিনি উদ্ধারকাজে সব ধরনের সহায়তা প্রদানের জন্য বাকুর প্রস্তুতির কথা জানান। আজারবাইজান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, ইরান থেকে আসা খবরে তারা হতবাক।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান বলেছেন, আমি প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি, পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির-আব্দুল্লাহিয়ান এবং তার সঙ্গীদের মৃত্যুতে ইরানের সরকার ও জনগণের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাই। আমরা প্রার্থনা করি যে ঈশ্বর তাদের চিরস্থায়ী শান্তি দান করুন এবং আমরা তাদের পরিবারের প্রতি আমাদের আন্তরিক সহানুভূতি জানাই।

প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির মৃত্যুতে সমবেদনা প্রকাশ করেছেন ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো। তিনি বলেছেন, রাইসি ভেনিজুয়েলার ‘নিঃশর্ত বন্ধু’ ছিলেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মাদুরো লিখেছেন, বলিভারিয়ান রিপাবলিক অব ভেনিজুয়েলার পক্ষ থেকে (আপনাকে) আন্তরিক আলিঙ্গন। আপনি ও ইরান মর্যাদা, নৈতিকতা এবং প্রতিরোধের উদাহরণ।

ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাস জানিয়েছে, তারা প্রেসিডেন্ট রাইসি এবং অন্যান্য কর্মকর্তাদের মৃত্যুতে তারা ইরানি জনগণের সঙ্গে ‘বেদনা ও দুঃখ’ ভাগ করে নিচ্ছে এবং ইরানের সাথে ‘পূর্ণ সংহতি’ প্রকাশ করছে। প্রয়াত ইরানি কর্মকর্তারা ফিলিস্তিনি জনগণের সমর্থনে এবং গাজার চলমান যুদ্ধ বন্ধ করার প্রচেষ্টাসহ ইসরায়েলের বিরুদ্ধে প্রতিরোধের জন্য ‘সম্মানজনক অবস্থান’ নিয়েছিলেন।

অন্যদিকে ইয়েমেনের হুথি গোষ্ঠীর সুপ্রিম রেভোল্যুশনারি কমিটির প্রধান মোহাম্মদ আলী আল-হুথি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেছেন, ইরানি জনগণ, ইরানের নেতৃত্ব এবং প্রেসিডেন্ট রাইসির পরিবার ও প্রতিনিধি দলের প্রতি আমাদের গভীর সমবেদনা। আমরা মহান আল্লাহর কাছে তাদের পরিবারের ধৈর্য ও সান্ত্বনার জন্য দোয়া করছি।

ইব্রাহিম রাইসির জানাজা কখন কোথায়

ইব্রাহিম রাইসির জানাজা আগামীকাল মঙ্গলবার তাবরিজে অনুষ্ঠিত হবে, যে শহরে তিনি গতকাল ভ্রমণ করেছিলেন। ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ডস কর্পসের সাথে সংযুক্ত দেশটির আধা-সরকারি বার্তাসংস্থা তাসনিম নিউজ এ তথ্য জানিয়েছে।

ইরানের ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী হলেন যিনিইরানের ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী হলেন যিনি ইরানের পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে তাসনিম নিউজ জানায়, ইরানের প্রেসিডেন্টের সাথে নিহত অন্যান্যদের জানাজাও সেখানে অনুষ্ঠিত হবে। তার আগে মরদেহগুলো তাবরিজের একটি ফরেনসিক বিভাগে নিয়ে যাওয়া হবে।

মন্তব্য করুন

daraz
  • আন্তর্জাতিক এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
ইউক্রেন যুদ্ধ শেষ করতে পুতিনের ৩ শর্ত
রাইসির স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল
রাইসির মৃত্যু: চূড়ান্ত প্রতিবেদনে যা জানালো ইরানের সশস্ত্র বাহিনী
নেতানিয়াহুকে ‘রক্তখেকো ভ্যাম্পায়ার’ আখ্যা দিলেন এরদোয়ান