Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ০৯ মে ২০২১, ২৬ বৈশাখ ১৪২৮

ওয়াশিংটন-সিউলকে উ. কোরিয়ার হুঁশিয়ারি

আমেরিকা-দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক মহড়া শুরুর আগে দিয়ে নির্মম হামলা চালানোর হুঁশিয়ারি দিলো উত্তর কোরিয়া।

কোরিয়া উপদ্বীপে সোমবার থেকে ১০ দিনের এ যৌথ সামরিক মহড়া শুরু করবে ওয়াশিংটন ও সিউল।

এ মহড়াকে বেপরোয়া আচরণ আখ্যা দিয়ে উত্তর কোরিয়া জানায়, তাদের এ আচরণ কোরিয়া উপদ্বীপ পরিস্থিতিকে নিয়ন্ত্রণহীন পারমাণবিক যুদ্ধের দিকে ঠেলে দিচ্ছে।

একইসঙ্গে পিয়ংইয়ং ঘোষণা দিয়েছে, তাদের সেনাবাহিনী যেকোনো সময় আমেরিকাকে হামলার লক্ষ্য বানাতে পারে। আর তখন তাদের এ নির্মম হামলা গুয়াম, হাওয়াই এমনকি খোদ আমেরিকাও এড়াতে পারবে না।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রায়ত্ত পত্রিকা রডং সিনমুনের বরাত দিয়ে রোববার সিএনএন এ খবর দিয়েছে।

উত্তর কোরিয়ার পরমাণু প্রকল্প নিয়ে সম্প্রতি পিয়ংইয়ং-ওয়াশিংটন চরম উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

জুলাইয়ে দুটি আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার পর উত্তর কোরিয়ার ওপর কঠোর বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে জাতিসংঘ।

আমেরিকা ওই নিষেধাজ্ঞা প্রস্তাব দেয়ায় ক্ষুব্ধ উত্তর কোরিয়া আগস্টের মাঝামাঝিতে প্রশান্ত মহাসাগরীয় মার্কিন দ্বীপ গুয়ামে চারটি ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়ার পরিকল্পনা চূড়ান্ত করার কথা জানায়।

চরম এ যুদ্ধ পরিস্থিতির মধ্যে গেলো সপ্তাহে ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়ার পরিকল্পনা স্থগিত করে আমেরিকার পরবর্তী পদক্ষেপ দেখে সিদ্ধান্ত নেয়ার ঘোষণা দেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন।

রডং সিনমুনের প্রতিবেদনে বলা হয়, উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে ট্রাম্পের দলের বেপরোয়া পরমাণু যুদ্ধের মহড়ার ঘোষণা পরিস্থিতিকে অনিয়ন্ত্রিত পরমাণু যুদ্ধের মুখে ঠেলে দেবে।

আমেরিকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিস উভয়ই গেলো সপ্তাহে যথাসময়ে দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে সামরিক মহড়া শুরু হবার কথা জানিয়েছিলেন।

দু’ দেশের বার্ষিক এ সামরিক মহড়াকে আগ্রাসনের অনুশীলন হিসাবেই দেখে আসছে উত্তর কোরিয়া। তবে আমেরিকা ও দক্ষিণ কোরিয়া বরাবরই এ মহড়া পুরোপুরি প্রতিরক্ষামূলক বলে দাবি করে আসছে।

এপি/কে/

RTV Drama
RTVPLUS