logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ৩ বৈশাখ ১৪২৮

মিথ্যা বলায় জাকারবার্গের বিরুদ্ধে মামলা

Muslim advocacy group in the US sues Facebook over claims it removes hate speech
সংগৃহীত

মার্কিন কংগ্রেসকে বিভ্রান্ত করায় সামাজিক যোগাযোগের জনপ্রিয় মাধ্যম ফেসবুক এবং এর শীর্ষ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে দায়ের করেছে মুসলিম অধিকার গ্রুপ। ফেসবুকের নীতি বিরুদ্ধ কন্টেন্ট সরিয়ে ফেলা হয়েছে বলে সংস্থাটি যে দাবি তা মিথ্যা বলে জানিয়েছে মুসলিম অ্যাডভোকেটস।

ওয়াশিংটনের ডিস্ট্রিক্ট অব কলম্বিয়ার সুপিরিয়র কোর্টে এই মামলা দায়ের করা হয়েছে। সেখানে বিবাদী করা হয়েছে ফেসবুক, সংস্থাটির সিইও মার্ক জাকারবার্গ, সিওও শেরিল স্যান্ডবার্গ এবং অন্যান্য কর্মকর্তাদের। মামলায় বলা হয়েছে, বিধি ভঙ্গ করে এমন কন্টেন্ট সরিয়ে ফেলা হয়েছে এমন মিথ্যা বক্তব্য দিয়ে জেলার ভোক্তা সুরক্ষা আইনে লঙ্ঘন করা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ বিমান দুর্ঘটনার পর আমাজনের গহীন জঙ্গলে ৩৮ দিন

মামলা বলা হয়েছে, মুসলিম বিরোধী প্রচার চালানো হয় এমন গ্রুপ এবং পেজ যেগুলো অধিকার গ্রুপ এবং বিশেষজ্ঞরা ফ্ল্যাগ করেছে সেগুলো সরাতে ব্যর্থ হয়েছে ফেসবুক। এগুলোর মধ্যে এমন পেজ এবং গ্রুপও রয়েছে, যেখানে মুসলিমদের ‘নোংরার’ সঙ্গে তুলনা করা হয়েছে। এমনকি ইসলামকে ‘মুছে ফেলতে’ আহ্বান জানানোও হয়েছে এসব পেজ ও গ্রুপে।

ঘৃণামূলক বক্তব্য, সহিংস কন্টেন্ট এবং অন্যান্য বিদ্বেষমূলক বিষয়াদি নিজেদের প্লাটফর্ম থেকে সরিয়ে দিতে সোশ্যাল মিডিয়াগুলো কি ভূমিকা পালন করছে তা গত কয়েক বছর ধরে আলোচনায় এসেছে। ২০২০ সালের জুলাই মাসে ফেসবুক একটি নাগরিক অধিকার অডিট প্রকাশ করে, সেখানে তারা দাবি করে যে, তাদের গ্রুপে মুসলিম এবং অন্যান্য টার্গেটেড গ্রুপের বিরুদ্ধে র্ঘণামূলক কর্মকাণ্ড মোকাবিলায় তারা আরও বিনিয়োগ করবে।

RTV Drama
RTVPLUS