logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৬ বৈশাখ ১৪২৮

বন্ধ হলো গুয়ান্তানামো কারাগারের কুখ্যাত টর্চার ইউনিট

U.S. shuts once-secret Guantanamo prison unit, moves prisoners
এনবিসি নিউজ থেকে নেয়া

গুয়ান্তানামো বে কারাগারের গোপন একটি ইউনিট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ওই ইউনিটে থাকা বন্দিদের অন্য একটি ইউনিটে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। রোববার মার্কিন সেনাবাহিনী এ কথা জানিয়েছে। খবর এনবিসি নিউজের।

মার্কিন সাউদার্ন কমান্ড জানিয়েছে, ক্যাম্প ৭-র বন্দিদের পার্শ্ববর্তী আরেকটি ক্যাম্পে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। এক বিবৃতিতে সাউদার্ন কমান্ড জানিয়েছে, অপারেশনাল দক্ষতা ও কার্যকারিতা বাড়াতে এমনটা করা হয়েছে।

মিয়ামি ভিত্তিক সাউদার্ন কমান্ড কিউবার দক্ষিণপূর্বাঞ্চলীয় অংশজুড়ে থাকা বন্দিশিবিরগুলো দেখভাল করে থাকে। তবে ক্যাম্পটি থেকে কতজনকে সরানো হয়েছে জানায়নি তারা। কর্মকর্তারা এর আগে জানিয়েছিলেন যে, ক্যাম্প ৭-এ ১৪ জন বন্দি রয়েছে। গুয়ান্তানামো কারাগারে ৪০ জন বন্দি রয়েছে।

সাউদার্ন কমান্ড জানিয়েছে, ক্যাম্প ৭-র বন্দিদের ‘নিরাপদে এবং ঝামেলা ছাড়াই’ ক্যাম্প ৫-এ সরিয়ে নেয়া হয়েছে। তবে কবে তাদের সরানো হয়েছে তা জানায়নি তারা। ক্যাম্প ৬-র পাশে অবস্থিত ক্যাম্প ৫-এ অনেকটা খালিই ছিল।

২০০৬ সালের ডিসেম্বরে এই ক্যাম্প ৭ খোলা হয়েছিল। এখানে বন্দিদের ওপর জিজ্ঞাসাদের নির্মম সব কৌশল প্রয়োগ করা হতো। মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ’র সঙ্গে এক চুক্তির আওতায় মার্কিন সেনাবাহিনী এই পরিচালনা করতো। তাই বন্দিদের অন্যত্র সরানোয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলো জড়িত ছিল বলে জানিয়েছে সাউদার্ন কমান্ড।

দীর্ঘদিন ধরে এই ক্যাম্পের অস্তিত্ব অস্বীকার করে মার্কিন সেনাবাহিনী। এমনকি সাংবাদিকদেরও সেখানে প্রবেশের অনুমতি ছিল না। কর্মকর্তারা এর আগে বলেছিলেন যে, এটা স্থায়ীভাবে বানানো হয়নি। তাই এর কিছু কাঠামোগত সমস্যা রয়েছে। আর এটা স্থায়ী করতে পেন্টাগনও আগ্রহ দেখায়নি।

ক্যাম্প ৭-এ বন্দি থাকাদের মধ্যে পাঁচজনের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ রয়েছে। ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর টুইন টাওয়ারে হামলার পরিকল্পনা এবং লজিস্টিক সহায়তা দেয়ায় তাদের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ আনে যুক্তরাষ্ট্র।

এর আগে নির্বাচনী প্রচারণার সময় জো বাইডেন গুয়ান্তানামো বে কারাগার বন্ধ করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। তবে সেখানকার বন্দিদের যুক্তরাষ্ট্রে এনে বিচার বা কারাগারে রাখার জন্য মার্কিন কংগ্রেসের অনুমোদনের প্রয়োজন পড়বে।

RTV Drama
RTVPLUS