logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৬ বৈশাখ ১৪২৮

বাড়ি থেকে কেন্দ্রে এনে পিপিই পরিয়ে করোনা আক্রান্তের ভোটের ব্যবস্থা

Covid patient voted in Gosaba, first time in South 24 Parganas
সংগৃহীত

ভারতে পশ্চিমবঙ্গসহ বেশ কয়েকটি রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। এরই মধ্যে করোনাভাইরাসের তাণ্ডবও অব্যাহত রয়েছে। তাই করোনায় আক্রান্ত ভোটাররা যাতে নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারে সেজন্য প্রশাসনকে ব্যবস্থা নিতে বলেছিল নির্বাচন কমিশন।

সেই নির্দেশনা মেনেই দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার গোসাবার এক করোনা রোগীর ভোট দেয়ার ব্যবস্থা করে দিলো স্বাস্থ্য দপ্তর। যার মধ্য দিয়ে প্রথম কোনও করোনা রোগীর ভোটাধিকার প্রয়োগের বন্দোবস্ত করে নজির গড়ল গোসাবা।

জানা গেছে, করোনায় আক্রান্ত ওই ব্যক্তির নাম শাহিনুর সর্দার। বৃহস্পতিবার করোনা বিধি মেনে পিপিই পরে ভোটকেন্দ্রে এসে নিজের গণতান্ত্রিক আধিকার প্রয়োগ করেন শাহিনুর। গোসাবার রাধানগরের তারানগর গ্রাম পঞ্চায়েতের ৯৬ নম্বর বুথে ভোট দেন তিনি।

এ বিষয়ে গোসাবার ব্লক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ইন্দ্রনীল বর্গী বলেন, করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিকে ভোটদানে উৎসাহ দেয়া হলে আগামী দিনে অন্য রোগীরাও বুথে আসবেন। এজন্য স্বাস্থ্যকর্মী ও প্রশাসনকে এগিয়ে আসতে হবে।

প্রশাসন সূত্র জানিয়েছে, নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা অনুযায়ী বাড়ি থেকে অ্যাম্বুলেন্সে করে ভোটকেন্দ্রে পৌঁছে দেয়া হয় শাহিনুরকে। সেখানে নির্বিঘ্নেই ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন তিনি। শাহিনুর ভোট দেয়ার পর বুথটি স্যানিটাইজ করা হয়।

ভোট দিতে পেরে ভীষণ খুশি শাহিনুর। তিনি বলেন, আমিও ভোট দিতে পারবো ভাবতেই পারিনি। তবে স্বাস্থ্য দপ্তর এবং প্রশাসনের সহযোগিতায় অসাধ্য সাধন হয়েছে। আশা করি পশ্চিমবঙ্গের সব জায়গাতেই এই ব্যবস্থা থাকবে।

উল্লেখ্য, পশ্চিমবঙ্গে এবার আট দফায় বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এরই মধ্যে দুই দফার ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দফার ভোটে উত্তাপ ছড়িয়েছিল পূর্ব মেদিনীপুরের আসন নন্দীগ্রাম। সেখান থেকে এবার বিজেপির প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে লড়ছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা ব্যানার্জি।

RTV Drama
RTVPLUS