logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ২ মাঘ ১৪২৭

শেষ মুহূর্তে ইরানের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের নতুন নিষেধাজ্ঞা

Trump's new last-minute sanctions against Iran
ফাইল ছবি
সদ্য বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিরুদ্ধে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) ইরানের দুটি ফাউন্ডেশন এবং তাদের সহযোগী প্রতিষ্ঠানের ওপর জারি করা হয় নতুন নিষেধাজ্ঞা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসন দাবি করছে, এই দুটি প্রতিষ্ঠান ইরানের অর্থনীতির বৃহৎ একটি অংশ নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। এর আগে গত সপ্তাহেই যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট ভবনে ট্রাম্প সমর্থকদের হামলার পর থেকে খারাপের দিকে যেতে থাকে পরিস্থিতি। বিষয়টি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও অন্যান্য দেশে আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। আর এরই মধ্যে নতুন আলোচনার জন্ম দিলেন ট্রাম্প।

মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয় ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের যে দুটি ফাউন্ডেশনের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে তার মধ্যে একটি হচ্ছে ইসলামি বিপ্লবের মহান নেতা ইমাম খোমেনীর নির্দেশ বাস্তবায়নকারী সংস্থা এবং অন্য একটি হচ্ছে আস্তান কুদস রাজাভি। সংস্থাটি ইমাম রেজা (আ.) এর মাযার ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করে। মূলত ইমাম রেজা হচ্ছেন শিয়া মুসলমানদের অষ্টম ইমাম।

যুক্তরাষ্ট্রের হঠাৎ করে জারি করা এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়বেন ফাউন্ডেশন দুটির নেতাদের সঙ্গে তাদের সহযোগীরাও। এছাড়াও তাদের সকলের সম্পদ জব্দ করা হবে এবং ফাউন্ডেশনের সঙ্গে যারা লেনদেন করবেন তাদের বিরুদ্ধেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

বুধবার (৬ জানুয়ারি) ওয়াশিংটনের ক্যাপিটল ভবনে মার্কিন সিনেট এবং প্রতিনিধি পরিষদের যৌথ অধিবেশন বসে। সেখানে সদ্য নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বিজয় নিশ্চিত করার জন্য ইলেক্টরাল ভোটের আনুষ্ঠানিক গণনা করা হয়। ঠিক সেই সময় ট্রাম্প সমর্থকরা মার্কিন কংগ্রেসে হামলা চালায়। এছাড়াও ট্রাম্প সমর্থকরা সেই সময় ক্যাপিটল ভবনে অনেক ভাংচুর এবং লুটপাট করে। আর এ ঘটনাকে সমর্থন জানিয়ে ট্রাম্প নিজেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার ও ফেসবুকে পোস্ট দেন। এরপর সংবিধানের ২৫তম সংশোধনী অধিবেশনে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ইমপিচ করতে মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্র্যাট সদস্যরা প্রস্তাব উত্থাপন করেন।

সূত্র : আলজাজিরা

এসআর/কেএফ

RTV Drama
RTVPLUS