logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ২ মাঘ ১৪২৭

ট্রাম্পের উগ্র সমর্থকের ‘দখলে’ স্পিকারের চেয়ার

স্পিকারের চেয়ারে বসে ট্রাম্পের উগ্র সমর্থক 
যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের এক যৌথ অধিবেশনে নির্বাচনে জো বাইডেনের জয়ের স্বীকৃতির প্রক্রিয়া চলার সময় ডনাল্ড ট্রাম্পের শত শত সমর্থক ক্যাপিটল ভবনে হামলা চালায়। এসময় তারা পার্লামেন্ট ভবনে ঢুকে ভাংচুরও করে।

বুধবার পুলিশের অবরোধকে পাত্তা না দিয়ে বিকেল চারটার ঠিক আগে একদল উগ্র ট্রাম্প সমর্থক ঢুকে পড়ে যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট ভবনে। সেখানে মুহূর্তের মাঝে এক বিশৃঙ্খলা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায়, যুক্তরাষ্ট্রের স্পিকারের চেয়ারে বসে আছে এক ‘ভ্যাগাবন্ড’। আরেকজনকে দেখা যায় সংসদের মাইক্রোফোন তুলে নিয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে সাংসদদের আসনে গরুর সিং মাথায় নিয়ে বসে আছেন এক বিক্ষোভকারী।

কংগ্রেসের উভয় কক্ষের যৌথ অধিবেশনে পপুলার ভোটের ভিত্তিতে ইলেকটোরাল কলেজের দেয়া ভোটগুলো গোনার সময় ট্রাম্প সমর্থকদের হামলায় এভাবেই লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় কংগ্রেস ভবনের ভিতর আর বাহির। পুলিশের টিয়ারসেল ও ফাঁকা গুলিতে ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টার মধ্যেই আসে কারফিউর ঘোষণা।

যুক্তরাষ্ট্রে গত ৩ নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেনের বিজয় প্রত্যয়ন করতে কংগ্রেসের এই অধিবেশনের কয়েক ঘণ্টা আগেই ওয়াশিংটন শহরে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সমর্থকরা বড় ধরনের বিক্ষোভ সমাবেশ করে। সেই বিক্ষোভ একপর্যায়ে সহিংসতায় রূপ নেয়।

ট্রাম্প সমর্থকরা এ সময় ব্যাপক ভাঙচুর চালায়। এ ছাড়া সেখানে ঘটেছে গোলাগুলির ঘটনাও। গুলিবিদ্ধ হয়ে একজন নারীর মৃত্যু হয়েছে। এফবিআই জানিয়েছে, তারা দুটি সন্দেহভাজন বিস্ফোরক ডিভাইস নিষ্ক্রিয় করেছে।

উল্লেখ্য, গত ১০০ বছরের বেশি সময়ের মধ্যে ক্যাপিটল হিলে এই প্রথম এত বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি হলো। সবশেষ ১৮১৪ সালে ব্রিটিশ সেনাবাহিনী ক্যাপিটল হিলে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল।

জিএম/এসএস

RTV Drama
RTVPLUS