Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ০৩ আগস্ট ২০২১, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৮

এ এইচ মুরাদ, আরটিভি অনলাইন

  ০৭ জুন ২০২০, ১২:৪৪
আপডেট : ০৭ জুন ২০২০, ১৩:৩০

ভেঙেই গেল শাকিব-বুবলী জুটি

Shakib, bubly
ফাইল ছবি

প্রেম, বিয়ে ও সন্তানের গুঞ্জন সব কিছু মিলে সিনেমায় আদর্শ নায়ক-নায়িকা জুটি শাকিব খান ও শবনম বুবলী। তাদের এই প্রেমের গুজন দর্শকের একটা অংশকে বেশ কৌতূহলী করেছে। যে মানুষটা হয়তো খুব একটা সিনেমা দেখেনও না তারাও জানতে চাইতেন, এই শাকিব-বুবলীর খবর কী? বিষয়টি বাংলা চলচ্চিত্রের জন্য অবশ্যই শুভ সংবাদ। কারণ বহুদিন পর কোনও জুটির ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে এতটা আলোচনা চলছিল। এছাড়া তারা বেশ কিছু হিট ছবি উপহার দিতেও পেরেছেন। কিছু ফ্লপ সিনেমাও আছে তালিকায়। সেখানে সিনেমা ব্যবসা না করলেও শাকিব-বুবলীর গান ও রসায়ন দর্শক পছন্দ করেছেন।

এরই মধ্যে খবর, শাকিব খান প্রযোজিত ‘প্রিয়তমা’ ছবি থেকে বাদ পড়লেন বুবলী। কারণ নাকি গল্পের কিছুটা পরিবর্তন করা হয়েছে। সেই জন্যই বুবলীকে বাদ দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি জানিয়েছেন ওই ছবি পরিচালক হিমেল আশরাফ। যেখানে বছরের পর পর ধরে এই সিনেমাটি নির্মাণের ঘোষণা দেওয়ার পরও শুটিং অবধি যেতে পারেননি পরিচালক। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে নায়িকা বাদ দেওয়ার ঘোষণাটি শুনে নিন্দুকেরা হাসছেন।

এই ঘটনার সূত্র ধরে কিছু ভেতরে গেলে কিছু বিষয় সামনে চলে আসে। সেটি হলো শাকিবের হাতে থাকা নতুন কোনও সিনেমাতেই দেখা যাবে না বুবলীকে! এমন তথ্য আরটিভি অনলাইনের কাছে এসেছে। তবে এই জুটি ভেঙে যাওয়ার কারণ স্পষ্ট নয়। বুবলীকে নিয়ে গণমাধ্যমে শাকিব যেভাবে প্রশংসা করতেন তা বর্তমান যুগে ইন্টারনেটে এক ক্লিকেই খুঁজে পাওয়া সম্ভব। সুতরাং খবরে আড়ালে আরও অনেক খবর অপেক্ষা করছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

এদিকে নিন্দুকেরা বলছেন, যে কারণে বুবলী আড়ালে সেই কারণেই ভেঙে যেতে পারে এই জুটি। পাঠক পুরোনো কাসুন্দি না হয় আর নাই-ই ঘাঁটলাম। অন্যদিকে বুবলীর এই আড়ালে থাকা নিয়ে নাকি ঘোর দুশ্চিন্তায় শাকিব খানের সাবেক স্ত্রী এবং তার পুত্রের জননী অপু বিশ্বাস! সম্প্রতি বুবলীকে নিয়ে একটি গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে। এ সময় অপু নাকি তার কাছের মানুষদের কাছে একটি প্রশ্নই বার বার করেছেন। সেটি কি জানেন, এই ছেলে নাকি মেয়ে?

শাকিব-বুবলীকে যদি আর জুটি হিসেবে নতুন সিনেমাতে না দেখা যায়। তবে তাদের শেষ ছবি হতে চলেছে বিদ্রোহী। সিনেমাটির বেশ কয়েকবার নাম পরিবর্তন করা হয়। ২০১৮ সালে মাননীয় সরকার একটা প্রেম দরকার নামে মহরত অনুষ্ঠিত হয়, চিত্রগ্রহণের সময় শোনা যায় কালপ্রিট, একটু প্রেম দরকার ও ক্রিমিনাল। শেষ পর্যন্ত সেন্সর হয়েছে বিদ্রোহী নামে। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন শাহীন সুমন।

এম

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS