logo
  • ঢাকা বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬

করোনা আপডেট

  •     স্পেনে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৮৪৯ জন, মোট মৃত্যু ৮১৮৯ জন, আক্রান্ত ৯৪৪১৭ জন: এএফপি। সৌদিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ১১০ আক্রান্ত, মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৫৬৩ জন: সৌদি গেজেট। এই প্রথম কাতারে এক বাংলাদেশির মৃত্যু: কাতার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে নতুন আক্রান্ত ২, মোট আক্রান্ত ৫১ জন, সুস্থ ৬ জন: আইইডিসিআর। যুক্তরাষ্ট্রে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৫৬৫, আক্রান্ত ১৯৯৮৮, মোট মৃত্যু ৩০৪০, আক্রান্ত এক লাখ ৬৪২৭৪ জন, এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ২৭৯ জনের মৃত্যু হয়েছে নিউইয়র্ক সিটিতে। গত ২৪ ঘণ্টায় স্পেনে মৃত্যু ৯১৩, জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ৫২৩১ জন, আক্রান্ত ৭৮৪৬, সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ইতালিতে ১১ হাজার ৫৯১, তারপর স্পেনে ৭৭১৬, ফ্রান্স ৩১৮৬: জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি।

শনিবার আরটিভিতে 'একমুঠো জোনাকি'

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৩:৪৪
সাজ্জাদ-ফারিয়া
নাটকের দৃশ্যে সাজ্জাদ-ফারিয়া

আসছে শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টায় জনপ্রিয় বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভিতে প্রচারিত হবে নাটক 'একমুঠো জোনাকি'। শফিকুর রহমান শান্তনুর রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন দীপু হাজরা।

নাটকটিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইরফান সাজ্জাদ, শবনম ফারিয়া, মাসুম বাশার, নিঝু মনি, ফরিদ মোহাম্মাদ, নাজিরুল আপন, শুভ, ফাইজা, নজরুল ইসলাম প্রমুখ। প্রযোজনা করেছেন মোজাফফর দিপু।

গল্পে দেখা যায়, আবীরের সঙ্গে হৃদির পরিচয়টা মজার। একদিন হৃদি রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল। তখন তাকে লক্ষ্য করে দুজন ইভটিজার শিষ দেয়।  এসময় সুদর্শন আবীরকে এগিয়ে আসতে দেখে হৃদি সাহস পায়। ভাবে, আবীর হয়তো এই দুজন বখাটেকে শায়েস্তা করবে। কিন্তু আবীর তা না করে আচমকা অট্টহাসিতে মেতে ওঠে। তার হাসি দেখে হৃদি যেমন বিব্রত হয় তেমনি ইভটিজাররা চমকে ওঠে। এসময় এক পুলিশ এসে দাঁড়ালে ইভটিজার দুজন পালায়। পুলিশ আবীরকে ধরে নিয়ে যায় থানায়।

আবীরের বাবা মাসুম সাহেব থানায় এলে পুলিশ জানায়, তার ছেলের নামে ভয়াবহ অভিযোগ। সে রাস্তার নিরীহ মেয়েকে ইভটিজিং করেছে। মাসুম সাহেব তখন হৃদিকে জিগ্যেস করে, তার ছেলে সত্যিই তাকে বিরক্ত করেছে কিনা? হৃদি বলে, বিরক্ত না হলেও আবীরের হাসি তাকে বিব্রত করেছে। মাসুম সাহেব জানান, এটা তার ছেলের অসুখ। একে বলে, সিউডোবুলবার এফেক্ট। এটা খুব বিরল এক ব্যাধি। যার চিকিৎসা অনেকদিন থেকে চললেও পুরোপুরি সুস্থ হয়ে ওঠেনি আবীর। এ রোগে আক্রান্তরা হঠাৎ এমনভাবে হেসে ওঠে বা কেঁদে ফেলে যে মনে হয়, তারা সত্যিই হাসছে বা কাঁদছে। আসলে এটা তারা করে অসুখের কারণে। কোনভাবেই হাসি বা কান্না নিয়ন্ত্রণ করতে পারে না। একারণে অনেকেই তার ছেলেকে ভুল বোঝে।

এই ঘটনার পর হৃদি পুলিশকে অনুরোধ করে আবীরকে ছাড়াবার ব্যবস্থা করে। একইসাথে আবীরের সাথে হৃদির একটা বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সেখান থেকেই প্রেম।

এদিকে মাসুম সাহেব ছেলের রিলেশন দেখে ঠিক করেন, হৃদির পরিবারে প্রস্তাব পাঠাবেন। হৃদির অভিভাবক বলতে বড় ভাই হৃদয় আর ভাবী। হৃদয় প্রস্তাব শুনে ছেলের ছবি দেখেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন। কাকতালীয়ভাবে, হৃদয়ের অফিসে আবীর চাকরি করে। তাই আবীরের অসুখের ব্যাপারে হৃদয় আগে থেকেই অবগত। কিন্তু হৃদয়ের বোন যে হৃদি এটা আবীর বা ওর বাবা জানতো না। হৃদয় মাসুম সাহেবকে একরকম অপমান করে বলে, আপনার ছেলের কি যোগ্যতা আছে আমার বোনকে বিয়ে করার? সে তো প্রতিবন্ধী। মাসুম বোঝাতে চেষ্টা করে, ওরা পরস্পরকে ভালোবাসে। কিন্তু হৃদয় কোনও কথাই শুনতে নারাজ।

 

হৃদয় হৃদিকে ডেকে সাবধান করে দেয় আবীরের ব্যাপারে। পাশাপাশি আবীরকে ডেকে যা তা বলে। আবীর কাজে কর্মে ভালো হলেও তার অসুখের কারণে তাদের বেশকিছু প্রজেক্ট মিস হয়ে যায়। এজন্য হৃদয়ের বকা শোনে সবসময়। হৃদয়ের ধারণা হয়, আবীর ইচ্ছা করে তার বোনের সাথে রিলেশন করেছে যাতে হৃদয়কে উচিত শিক্ষা দিতে পারে। এসব মনগড়া ভাবনা ভেবে হৃদয় আবীরকে চাকরি থেকে স্যাক করে। আবীর বুঝতে পারে, প্রিয়জনকে পেতে হলে তার যোগ্য হয়ে উঠতে হয়। তাকে দিয়ে ওসব হবে না। তাই সে হৃদির কাছ থেকে দূরে সরে যায়। এদিকে হৃদি আবীরের বিরহে ভেঙে পড়ে। তার বিয়ে ঠিক করে হৃদয়। কিন্তু বিয়ের আগে হৃদি বেকে বসে। বাধ্য হয়ে হৃদয় তার বৌয়ের সাথে পরামর্শ করে ঠিক করে, বোনের সুখের জন্যে আবীরের সাথেই বিয়ে দেবে। কিন্তু আবীর! আবীর কোথায়? অভিমানে কোন সুদূরে চলে গেছে সে? এভাবেই এগিয়ে চলে 'একমুঠো জোনাকি' নাটকের গল্প।

এম

corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৫১ ১৯
বিশ্ব ৮২৩৭৪৯ ১৭৪১১৫ ৪০৭০৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • বিনোদন এর সর্বশেষ
  • বিনোদন এর পাঠক প্রিয়