• ঢাকা সোমবার, ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়ার চলচ্চিত্র ‘জন্মভূমি’

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২৩:১৫ | আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:২৭
‘জন্মভূমি (দ্য বার্থ ল্যান্ড)’ চলচ্চিত্রের প্রিমিয়ার শো।
রাজধানীর তেজগাঁও এর বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া স্টুডিওতে সোমবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৬টায় বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো প্রসূন রহমান নির্মিত ‘জন্মভূমি (দ্য বার্থ ল্যান্ড)’ চলচ্চিত্রের প্রিমিয়ার শো।

whirpool
বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া লি. (আরটিভি)-এর ব্যানারে নির্মিত চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করেছেন আরটিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) সৈয়দ আশিক রহমান। প্রিমিয়ার শো’তে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।  

এসময় তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘জন্মভূমি থেকে কেউ যদি বিতাড়িত হয়, এর চাইতে বেদনাদায়ক, দুঃখজনক ঘটনা আর কী হতে পারে? ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় আমাদের এক কোটির মতো লোক ভারতে আশ্রয় নিয়েছিল। আমরা সেই বেদনা বুঝি। তাই নিজ ভূমি থেকে বিতাড়িত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বিশ্বের বুকে বাংলাদেশ অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। এখন আমরা চাই মিয়ানমার সরকার এই রোহিঙ্গাদের সম্মানের সঙ্গে নিজ দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাক, তাদেরকে নাগরিকত্ব দিক, ভূমির অধিকার দিক।’

অনুষ্ঠানে বেঙ্গল গ্রুপের চেয়ারম্যান আলহাজ মোরশেদ আলম এমপি বলেন, ‘বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে রোহিঙ্গা সংকটের সমাধান হিসেবে পাঁচ দফা পরিকল্পনা তুলে ধরেছেন। তিনি রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে নিরাপদ ও সম্মানের সঙ্গে ফিরে যাওয়ার ব্যাপারে বিশ্ব জনমতকে জাগিয়ে তুলেছেন। আমাদের এই চলচ্চিত্রটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দাবির প্রতিধ্বনি।’

আরটিভি প্রধান নির্বাহী (সিইও) এবং জন্মভূমি চলচ্চিত্রের প্রযোজক সৈয়দ আশিক রহমান বলেন, ‘গণমাধ্যম হিসেবে আরটিভি এই দেশহীন মানুষেগুলোর জন্য প্রতিদিন সংবাদ, প্রতিবেদন, তথ্যচিত্র প্রচার করছে। আমরা মনে করি, আন্তর্জাতিকভাবে ‘জন্মভূমি’ চলচ্চিত্রটি প্রদর্শিত হলে, সংবেদনশীল বিশ্ব জনমতকে প্রভাবিত করা যাবে।’

পরিচালক প্রসূন রহমান বলেন, ‘জন্মভূমি চলচ্চিত্রটির গল্প গড়ে উঠেছে বাংলাদেশের কক্সবাজার জেলার কুতুপালংয়ে মায়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে আগত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিয়ে। মিয়ানমার সরকার ২০১৭ সালের আগস্টে রোহিঙ্গাদের উপর ব্যাপক হত্যাকাণ্ড চালালে জীবন বাঁচানোর জন্য প্রায় ১১ লক্ষ শরণার্থী নিজেদের জন্মভূমি ছেড়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। এদের মধ্যে প্রায় ৬৫ হাজার নারী গর্ভবতী ছিল এবং অনেকে মায়ানমার আর্মি দ্বারা ধর্ষিত হয়। বাংলাদেশ সরকার তাদের আশ্রয়ের জন্য কুতুপালংয়ে শরণার্থী শিবির তৈরি করে দেন। তাদের এখন একটাই স্বপ্ন, নিজেদের জন্মভূমিতে ফিরে যাওয়া।’

চলচ্চিত্রটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন রওনক হাসান, সায়রা আক্তার জাহান, সংগীতা চৌধুরী, অঙ্কন চাকমা, জয়নাল জ্যাক, পামেলা কেচার, নাসির উদ্দিন’সহ আরও অনেকে।

‘জন্মভূমি’র প্রিমিয়ার শো’তে আরও উপস্থিত ছিলেন সাবেক রাষ্ট্রদূত এম জমির, সাবেক রাষ্ট্রদূত ওয়ালিউর রহমান, ইউএস অ্যাম্বেসির পাবলিক অ্যাফেয়ার্স অফিসার নিকোলাস পেপ, ইউএস অ্যাম্বেসির ইনফরমেশন অফিসার জে জে জোরিয়া, সিআরআই-এর ঢাকা ব্যুরোর চীফ করেসপন্ডেন্ট মিস. আনন্দী, জাপান অ্যাম্বেসির পাবলিক রিলেশন অ্যান্ড কালচারাল সেকশনের প্রধান মাচিকো ইয়ামামুরা প্রমুখ। 

এছাড়া অভিনেত্রী জয়া আহসান, নির্মাতা সালাউদ্দিন লাভলু, গোলাম সোহরাব দোদুল, দীপঙ্কর দীপন, চিত্রনায়ক বাপ্পি এবং আরটিভির অনুষ্ঠান প্রধান দেওয়ান শামসুর রকিব, ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর সৈয়দা মুনিরা ইসলাম, উপ বার্তা প্রধান মামুনুর রহমান খানসহ চলচ্চিত্রটির অভিনয়শিল্পী ও কলাকুশলীরা উপস্থিত ছিলেন। 

আরও পড়ুন :  

পিআর/এমকে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়