• ঢাকা সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১
logo

কঙ্গনাকে চড় মারা সেই নারী নিরাপত্তারক্ষী গ্রেপ্তার

বিনোদন ডেস্ক, আরটিভি

  ০৭ জুন ২০২৪, ১৫:৩৮
সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

ভারতের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য বলিউড তারকা কঙ্গনা রাণৌতের গালে চড় দেয়ার অপরাধে বহিষ্কার করা হয়েছিল সেন্ট্রাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিকিউরিটি ফোর্সের নারী নিরাপত্তারক্ষী কুলবিন্দর কৌরকে। এবার তাকে করা হলো গ্রেফতার। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের এক প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এ তথ্য।

সংসদ ভবনের পক্ষ থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, কঙ্গনা অভিযোগ করেছেন যে বৃহস্পতিবার (৬ জুন) হিমাচল থেকে দিল্লিতে যাচ্ছিলেন তিনি UK707 বিমানে। চণ্ডীগড় বিমানবন্দরে সিক্যুরিটি চেকিংয়ের পর বোর্ডিংয়ের সময় সিআইএসএফের মহিলা কনস্টেবল কুলবিন্দর কৌরের ওপর কঙ্গনা তাঁকে চড় মারার অভিযোগ আনেন।

এই অভিযোগের পরই কুলবিন্দর কৌরকে আটক করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। গোটা ঘটনাটি চণ্ডীগড় বিমানবন্দরের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা হচ্ছে খতিয়ে। ঘটনার এই নারী জওয়ানকে সাসপেন্ড করেছিল সিআইএসএফ।

কঙ্গনা বৃহস্পতিবার (৬ জুন) চণ্ডীগড় বিমানবন্দরে এসেছিলেন বিমানে উঠতে। দিল্লি যাওয়ার জন্য বিমানবন্দরে হাজির হয়েছিলেন তিনি। সেই সময়ে এক মহিলা CISF জওয়ান তার সঙ্গে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন এবং তাকে চড় মারেন। এর পরে কঙ্গনার সঙ্গে থাকা একজন পালটা চড় মারেন ওই জওয়ানকে।

জানা গেছে ভারতের কৃষক আন্দোলন নিয়ে উল্টাপাল্টা মন্তব্য করেছিলেন কঙ্গনা। আক্রমণাত্মক টুইট করেছিলেন। তখন থেকেই অভিনেত্রীর ওপর ক্ষুব্ধ ছিলেন ওই জওয়ান। এবার বিমানবন্দরে দেখা পেতেই মেটালেন মনের ঝাল।

এদিকে চড় খেয়ে কঙ্গনাও মুখ খুলেছেন। তিনি বলেন, আজ চণ্ডীগড় বিমানবন্দরে যে ঘটনাটি ঘটেছে, সেটি সিকিওরিটি চেকের সময়ে ঘটেছে। চেক করে যেই বেরিয়েছি, তখন অন্য কেবিনে যে নারী ছিলেন, যিনি ওই কেবিনের নিরাপত্তাকর্মী হিসাবে কাজ করছিলেন, সেই CISF জওয়ান মহিলা, উনি পাশ থেকে এসে আমার মুখে মারেন। গালি দিতে শুরু করেন।

প্রসঙ্গত, গত ৪ জুন সকাল ৮টায় লোকসভা ভোটকেন্দ্রের ভোট গণনা শুরু হয়। ওই দিন বিকেলে জানা যায়, কংগ্রেস প্রার্থীকে ৭২ হাজার ভোটের ব্যবধানে পেছনে ফেলে জয়লাভ করেছেন কঙ্গনা। ৫ লাখ ২১ হাজার ৭৪০ ভোট পেয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন এ নায়িকা।

ভারতের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল বিজেপির কট্টর সমর্থক বলিউডের ঠোঁটকাটা স্বভাবের অভিনেত্রী কঙ্গনা রানৌত। রাজনীতিতে ডেবিউয়ের আগে বিভিন্ন সময় নানা ইস্যুতে দলটিকে সমর্থন করেছেন তিনি। সেসব বিষয়ে শিরোনামেও একাধিকবার জায়গা করে নিয়েছেন। তবে এবার নির্বাচনে জয়লাভ করে আলোচনায় উঠে এলেন কঙ্গনা রানৌত।

মন্তব্য করুন

daraz
  • বিনোদন এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
ইন্দিরা গান্ধীকে ‘মাদার অব ইন্ডিয়া’ বললেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা
ওড়িশার প্রথম মুসলিম নারী এমএলএ, কে এই সোফিয়া
মোদির মন্ত্রিসভায় নেই কোনো মুসলিম
বিজেপি নেতা আদভানির সঙ্গে শেখ হাসিনার সাক্ষাৎ