• ঢাকা বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১
logo

এআইয়ে ফিরলেন জসিম-দিলদার

বিনোদন ডেস্ক, আরটিভি

  ০৬ জুন ২০২৪, ২১:৪৭
সংগৃহীত
ছবি : সংগৃহীত

ঢাকাই সিনেমার আশির দশকের দাপুটে চিত্রনায়ক জসিম। নায়কের পাশাপাশি তিনি ছিলেন একজন মুক্তিযোদ্ধা। খল চরিত্র দিয়ে অভিনয়ে ক্যারিয়ার শুরু করলেও পরে নায়ক হিসেবে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন তিনি। তাকে ধরা হয় বাংলাদেশের অ্যাকশন ধারার চলচ্চিত্রের অন্যতম প্রবর্তক।

নায়ক জসিমের পুরো নাম আবদুল খায়ের জসিম উদ্দিন। তিনি ১৯৫০ সালের ১৪ আগস্ট ঢাকার কেরানীগঞ্জের বক্সনগর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। লেখাপড়া করেন বিএ পর্যন্ত। ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধে ২ নম্বর সেক্টরে মেজর হায়দারের নেতৃত্বে লড়াই করেন তিনি।

মুক্তিযুদ্ধের পর ১৯৭২ সালে ‘দেবর’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে জসিমের আত্মপ্রকাশ। এ সিনেমাতে তার অভিনয় পরিচালকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। অল্প দিনের মধ্যেই চলচ্চিত্রে ব্যস্ত হয়ে পড়েন জসিম। ১৯৭৩ সালে তিনি ‘রংবাজ’ সিনেমাতে অ্যাকশন ডিরেক্টর হিসেবে কাজ করে প্রশংসিত হন।

নায়ক জসিম খলচরিত্রে অভিনয় করেন দেওয়ান নজরুলের ‘বারুদ’, ‘আসামি হাজির’, ‘ওস্তাদ সাগরেদ’, ‘জনি’, ‘কুরবানি’সহ অনেক ব্যবসাসফল সিনেমাতে। ১৯৮০ সালের শুরুর দিকে সুভাষ দত্তের পরিচালনায় ‘সবুজ সাথী’ ছবির মাধ্যমে তিনি নায়ক হয়ে পর্দায় হাজির হন। ভিলেন থেকে নায়ক চরিত্রে এসেও ব্যাপক সাফল্য পান জসিম। তিনি ববিতা, সুচরিতা, শাবানা, রোজিনা, নাসরিনসহ সে সময়ের সফল নায়িকাদের বিপরীতে অভিনয় করেন।

ঢাকাই সিনেমার আশির দশকের দাপুটে এই চিত্রনায়ক নেই ২৬ বছর হতে চলেছে। ১৯৯৮ সালের ৮ অক্টোবর মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণজনিত কারণে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান এই অ্যাকশন হিরো।

সম্প্রতি মোটা গোঁফ, পরিপাটি চুল, রোদচশমা আর হাফ হাতা বোতামখোলা চেক শার্টে গাড়ির চালকের আসনে স্টাইলিশ ভঙ্গিতে ধরা দিলেন প্রয়াত ঢাকাই সিনেমার চিত্রনায়ক জসিম। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তায় (এআই) তৈরি করা ছবিটি ইতোমধ্যে সামাজিক পাতায় ছড়িয়ে পড়েছে।

এআইয়ে ছবিটি তৈরি করেছেন আবদুর রউফ নামের এক ডিজাইনার। শুক্রবার (৩১ মে) রাত ৯টার দিকে ছবিটি ফেসবুকে পোস্ট করেছেন তিনি। তার পোস্ট করা ছবিতে দেখা গেছে, জসীমকে এক সমুদ্রসৈকতে গাড়ির চালকের আসনে খোশমেজাজে দেখা গেছে। আশির দশকের এই নায়কের অসংখ্য ভক্ত রয়েছে। জসিমের এই ছবিটি দেখে প্রশংসা করছেন জসীমের ভক্ত-অনুরাগীরা। অনেকে লিখেছেন, ‘দুর্দান্ত লাগছে।’ আবার কেউ কেউ লিখেছেন, ‘আমার প্রিয় অভিনেতা’।

এদিকে বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেতা দিলদার। যার পুরো নাম দিলদার হোসেন। একজন কৌতুক অভিনেতা হিসেবে দর্শকমহলে তুমুল প্রশংসিত তিনি। অভিনয় করেছেন অসংখ্য সিনেমায়, জনপ্রিয় সব তারকাশিল্পীদের সঙ্গে। সেই দিলদার আবার ফিরে এলেন নতুন রূপে (কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তায়, এআই)!

অর্ক ফারিয়ান সাবিত নামের এক গ্রাফিক্স ডিজাইনার দিলদারের ছবিটি গেল মঙ্গলবার (৪ জুন) সামাজিক যোযোযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেন। এআই দিয়ে তৈরি ছবিটি মুহূর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায় ফেসবুকে। তাকে দেখে অনেকেই উচ্ছ্বাস ও আনন্দ প্রকাশ করেছেন। ভক্ত-অনুরাগীরাও নতুন করে দিলদারকে দেখে যেন আনন্দিত।

প্রসঙ্গত, ঢাকাই সিনেমার অপ্রতিদ্বন্দ্বী কৌতুক অভিনেতার আসন দখল করা দিলদার নেই আজ ২১ বছর হতে চলেছে। ২০০৩ সালের ১৩ জুলাই ৫৮ বছর বয়সে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন তুমুল জনপ্রিয় এই অভিনেতা।

১৯৭২ সালে ‘কেন এমন হয়’ সিনেমার মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়েছিল দিলদারের। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে পাঁচ শতাধিক সিনেমায় কাজ করেছেন তিনি। মৃত্যুর বছরে সেরা কৌতুক অভিনেতা হিসেবে ‘তুমি শুধু আমার’ সিনেমার জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান দিলদার। কৌতুক অভিনয়ের পাশাপাশি দিলদারকে নায়ক হিসেবে অভিনয় করেছিলেন ‘আব্দুল্লাহ্’ নামের একটি সিনেমায়।

মন্তব্য করুন

  • বিনোদন এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
আমার ক্যাম্পাস রক্তাক্ত কেন, প্রশ্ন নায়ক সিয়ামের
ব্যাংকার থেকে বাংলা চলচ্চিত্রের মহানায়ক বুলবুল আহমেদ
অভিনেতা দিলদারকে নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য ফাঁস
অতীতে হামলার শিকার হয়েছিলেন যেসব মার্কিন রাষ্ট্রনায়ক