Mir cement
logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৭ জানুয়ারি ২০২২, ৩ মাঘ ১৪২৮
discover

ফের একসঙ্গে আমির-কিরণ!

ফের একসঙ্গে আমির-কিরণ!

১৫ বছরের দাম্পত্যের পর গেলো জুলাই মাসে বিচ্ছেদের পথে হাঁটেন আমির-কিরণ। ডিভোর্সের ঘোষণা দিয়ে সবাইকে চমকে দেন তারা। তবে বিচ্ছেদের পরও একসঙ্গে একাধিকবার দেখা গেছে তাদের। এবার ফের একসঙ্গে দেখা গেলো সাবেক এই দম্পতিকে।

শনিবার (২৭ নভেম্বর) আমির-কিরণ তাদের ছেলে আজাদের একটি ফুটবল ম্যাচ দেখতে একসঙ্গে উপস্থিত হয়েছিলেন। সেখানে তারা উপস্থিত থেকে ছেলেকে উৎসাহ দেন।

বিচ্ছেদের সময় তারা জানিয়েছিলেন, ব্যক্তিগত জীবনে আলাদা হলেও কাজের জায়গায় তারা একসঙ্গে থাকবেন। ছেলের সমস্ত দায়িত্বও একসাথেই পালন করবেন। ছেলের প্রয়োজনে যেকোনো সময় পাশে থাকবেন তারা। আর সেই কথা মতোই হাজির হলেন ফুটবল ম্যাচে।

চলতি বছর বিচ্ছেদের ঘোষণা দিলেও ২০১৯ সাল থেকেই বিচ্ছেদের বিষয়ে পরিকল্পনা করছিলেন তারা। পরস্পরের প্রতি কোনো বিদ্বেষ না থাকলেও, নিজেদের প্রতি টান হারিয়ে ফেলেছিলেন এই দম্পতি। এখন শুধু বন্ধুত্বটাই রয়ে গেছে।

সাবেক এই দম্পতির ঘনিষ্ঠ সূত্র ভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ‘আমির ও কিরণের আলাদা হওয়ার কারণটা খুবই সাধারণ। তাদের বিয়ের প্রকৃত ভিত্তিটাই নড়ে গেছে। বিশেষ কোনো দ্বন্দ্ব বা সমস্যা নেই। তারা বন্ধু হিসেবেই থাকবেন। বিশ্বাস ও মূল্যায়ন ঠিক থাকে। কিন্তু সময়ের সঙ্গে চাহিদা, দৃষ্টিভঙ্গি, মতাদর্শের পরিবর্তন হয়। এমনকি ভালোবাসা ও বিয়ের ব্যাপারে চিন্তায় পরিবর্তন আসে।'

তিনি আরও বলেন, ‘জীবনের এক পর্যায়ে এসে বিদ্বেষ মনোভাব নিয়ে সংসার করার চেয়ে আলাদা হয়ে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রাখাটাই ভালো। তারা দু’জনই অনুভূতির দিক থেকে ২০১৯ সালেই আলাদা হয়েছেন। এরপর ট্রায়াল পিরিয়ডে ছিলেন।’

সম্প্রতি গুঞ্জন, এবার তৃতীয় বিয়ের পথে এই অভিনেতা। এ নিয়ে অনুরাগীদের উত্তেজনা এবং কৌতূহল তুঙ্গে। সমালোচনার ঝড় ওঠে বেশকিছু কানাঘুষা খবরে। আমির নাকি বিয়ে করছেন তার দঙ্গল সহ-অভিনেত্রী ফাতিমা সানা শেখকে। ব্যাস! এ নিয়েই গুজব শুরু এবং সংসার ভাঙার তীক্ষ্ম দায় সোজা ফাতিমার দিকে। কীভাবে এত বছরের একটা সম্পর্ক ভেঙে দিয়ে নতুন সম্পর্কে আবদ্ধ হতে পারেন আমির এ নিয়েও চর্চা কম হয়নি। তবে এবার জল্পনার অবসান। তৃতীয় বিয়ের খবরটি একেবারেই মিথ্যা, সেটি জানিয়েছেন আমির নিজেই।

এ গুজবের পর থেকেই অভিনেত্রী ফাতিমা সানাকে নানা ধরনের কটু কথা থেকে কুরুচিকর মন্তব্য অনেক কিছুই শুনতে হয়েছে। এ প্রসঙ্গে আমির জানান, ঘটনার সত্য-মিথ্যা না জেনেই মানুষ তার (সানা) সম্পর্কে অহেতুক খারাপ কথা বলছে। আর যারা নতুন করে জানছেন তাদের চোখে খারাপ হয়ে যাচ্ছেন সানা। আমাকে জিজ্ঞেস করলেই সঠিক তথ্য দিতে পারি, অযথা কারও জীবন নিয়ে গুজব ছড়ানো কোনো মহান কাজ নয়।

এদিকে দ্বিতীয় স্ত্রী প্রযোজক ও নির্মাতা কিরণ রাওয়ের সঙ্গে দীর্ঘ ১৬ বছরের দাম্পত্যে বিচ্ছেদের সময়ই গুঞ্জন উঠেছিল এক তরুণ অভিনেত্রীর সঙ্গে আমিরের ঘনিষ্ঠতার কারণেই তাদের সংসারে ভাঙন ধরেছে। যদিও সেটি নিছকই গুজব।

ব্যক্তিজীবনে তিনবার প্রেমে ব্যর্থ হয়েছেন এই অভিনেতা। এক অনুষ্ঠানে আমির জানান, ১০ বছর বয়সে তার জীবনে প্রথম প্রেম আসে। কিন্তু তার সেই ভালোবাসা ছিল একতরফা। তিনি প্রতিদিন মেয়েটিকে দেখতেন আর পাগল হতেন। মেয়েটি সামনে এলেই মুখে কুলুপ এঁটে দাঁড়িয়ে থাকতেন।

তবে ১৬ বছর বয়সে পাশের বাড়ির মেয়ে রীণা দত্তের প্রেমে পড়েন আমির খান। তিনিই প্রথম আমিরের প্রেমে সাড়া দিয়েছিলেন। তাই দেরি না করে রিনাকে বিয়ে করে ঘরে তোলেন এই অভিনেতা। তবে ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে তার সেই ভালোবাসার ঘর ভেঙে যায়। ২০০২ সালে বিচ্ছেদের পথে হাঁটেন এই দম্পতি।

রিনার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ২০০৫ সালে কিরণ রাওকে বিয়ে করেন আমির। স্ত্রী-সন্তান নিয়ে সুখেই সংসার করছিলেন তিনি। কিন্তু সেই সংসারও টেকেনি।

এনএস

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS