logo
  • ঢাকা সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭

আমার সঙ্গে এই অন্যায় করল কেন: ড্যানি সিডাক

ড্যানি সিডাক,
ড্যানি সিডাক।

ঢাকাই চলচ্চিত্রে জনপ্রিয় অভিনেতা, পরিচালক, প্রযোজক ড্যানি সিডাক। সম্প্রতি বনের রাজা টারজান খ্যাত এই নায়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘বায়োপিক’-এ হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর চরিত্রে অভিনয়ের জন্য অডিশন দেন তিনি। কিন্তু হঠাৎ করেই তাকে বাংলাদেশ ও ভারত যৌথ প্রযোজনার খ্যাতিমান পরিচালক শ্যাম বেনেগালের ছবিটি থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে ভীষণ মনঃক্ষুণ্ণ হয়েছেন চিত্রনায়ক ড্যানি সিডাক।

ড্যানি সিডাক আরটিভি নিউজের সঙ্গে আলাপকালে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে জানানো হয় বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকে সোহরাওয়ার্দীর চরিত্রে আপনাকে নেওয়া হচ্ছে। আপনি অডিশন দেন। বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকে সোহরাওয়ার্দীর চরিত্রে অভিনয় করা তো ভাগ্যের ব্যাপার। আমি অডিশন দিয়ে চূড়ান্ত হলাম। আমি অনেক আনন্দিত ছিলাম মনে মনে। একজন জাতীয় নেতার বায়োপিকে অভিনয় করব, অন্যরকম অনুভূতি। তারপর করোনার হানা। ভারত থেকে যারা এসেছিলেন তারা করোনার জন্য চলে যায়।

তিনি আরও বলেন, পরবর্তীতে শিল্পীদের সাইনিংয়ের সময় জানতে পারি বায়োপিকে অভিনেতা শিল্পীর তালিকায় আমার নাম নেই। আমি যোগাযোগ করার চেষ্টা করি। আমাকে তখন জানানো হলো যে, আপনি তো চলচ্চিত্রে নেই। কিন্তু আপনার জায়গায় নেওয়া হয়েছে আরেকজন অভিনেতাকে। এটা কেমন কথা! কিন্তু অডিশন তো তাদেরই ডাকা হয়েছে যাদের চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য নেওয়া হবে। এখানে কোনো চরিত্রের জন্য একাধিক কারো অডিশন নেওয়া হয়নি। মূলত যারা অডিশন দিয়েছেন তারাই থাকছেন চলচ্চিত্রটিতে। তবে শেষ দিকে অডিশন ছাড়াই দু’একজনকে নেওয়া হয়েছে। আগামী ২২ জানুয়ারি থেকে মুম্বাইতে শুটিং শুরু হতে যাচ্ছে বায়োপিকটির।

সুপারম্যান ছবির এই নায়ক বলেন, এই বিষয়টি জানার পর আমি ভারতে যোগাযোগ করলে জানানো হয়, বাংলাদেশ থেকে যাদের নামের তালিকা পাঠানো হয়েছে তারাই কাজ করছেন চলচ্চিত্রটিতে। তালিকা তো বাংলাদেশ থেকে পাঠানো হয়েছে। এখন আমার প্রশ্ন হলো, কে এই কাজটা করল? আমাকে এভাবে বাদ দিলো কে? আমার সঙ্গে এই অন্যায় করল কেন?

কষ্ট নিয়ে ড্যানি সিডাক বলেন, এমন মহৎ একটি কাজে কারা এই চক্রান্ত করল? যদি রাজনৈতিকভাবে বলি, আমি স্বাধীনতার পক্ষের মানুষ। ছাত্রলীগ করা মানুষ। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট করেছি এবং এখানেই বহু বছর ধরে আছি। জাতির পিতাকে নিয়ে চলচ্চিত্র করা হবে, সেখানে তো তাদেরকেই নেওয়া হবে যাদের চলচ্চিত্রে কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে। আমার তো সাড়ে ৪০০ থেকে ৫০০ চলচ্চিত্র মুক্তি পেয়েছে। চলচ্চিত্রে আমার ৩৫ বছর হয়ে গেছে। এখানে আমাকে ডেকে নিয়ে অডিশন নিলো, আমি তো তদবির করে অডিশন দেইনি। যারা অডিশন নিয়েছেন তারা ক্যামেরার পেছনে ছিলেন। আমার কাছে ম্যাসেজও রয়েছে অডিশন নিয়ে কথা-বার্তার। মান্না ডিজিটাল থিয়েটারে অডিশন অনুষ্ঠিত হয়েছে আমাদের।

আক্ষেপ করে তিনি বলেন, এটা দুঃখজনক, অবমাননাকর। আমি তো নতুন শিল্পী না। তাহলে ঠিক ছিল যে, আমি নতুন শিল্পী আমাকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

ড্যানি সিডাক বলেন, আমি যেখানেই প্রশ্ন করেছি জানতে চেয়েছি তারা বলেছে, বিষয়টা তো এমন হওয়ার কথা নয়। আমরা যাদের অডিশন নিয়েছি তাদেরকেই তো নিয়েছি। আপনাকে বাদ দিলো কে? ভারত থেকে উল্টো প্রশ্ন করল আমায়। তালিকা তো আমাদের দেশ থেকে পাঠানো হয়েছে। তাহলে নামটা বাদ দিলো কে? আমি ড্রেস কোড মেনে অডিশন দিলাম। আমার যাবতীয় তথ্য রেখে দিলেন তারা। আমাকে নেবে বলেই তো আমার যাবতীয় তথ্য রেখে দিয়েছেন তারা। একজন শিল্পী হিসেবে শিল্পীর কষ্ট থেকে প্রশ্নগুলো কেনো এমনটা হলো, কী কারণে?

নিজের রাজনৈতিক আদর্শ নিয়ে এই নায়ক বলেন, আমাকে কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার আগে রাজীব সাহেব (প্রয়াত অভিনেতা) জাসাসে যোগ দেওয়ার জন্য অনেকবার বলেছেন। আমি তা করিনি। আমি সবসময় তাদের এটাই বলেছি, আপনার আদর্শ আলাদা, আমার আদর্শ আলাদা। আমি প্রস্তাবগুলো প্রত্যাখান করি। এ কারণে পরবর্তীতে আমার তৈরি চলচ্চিত্র ‘জান্ত লাশ’ মুক্তির আগে আটকিয়ে দেওয়া হয়। পরে অবশ্য মুক্তি দেওয়া হয়েছিল। মূলত আমার অপরাধ ছিল আমি আওয়ামী লীগ করি। চলচ্চিত্রটি মুক্তির পর যখন হিট হচ্ছে তখন আবার ব্যান করে দেওয়া হয় চলচ্চিত্রটি।

বুকে চাপা কষ্ট নিয়ে ড্যানি সিডাক বলেন, আমাকে যদি বঙ্গবন্ধুর ‘বায়োপিক’-এ নাই নেওয়া হবে, তাহলে অডিশন নেওয়া হলো কেন? না নিলেই পারত। আমাকে নিয়ে এভাবে খেলা হলো কেনো? আমি আওয়ামী লীগ করি বলে? স্বাধীনতার লোক বলে? আমার দল-সরকার ক্ষমতায় আসার আগেও বিতারিত করা হয়েছে আমাকে। অথচ আমার জাতির পিতার চলচ্চিত্র থেকে আমাকেই সরিয়ে দিলো। একজন শিল্পীর জন্য এটা কষ্টের। অপমানের। আমি শুধু একটা কথাই বলতে চাই। আর কোনো শিল্পীর সঙ্গে যেন এমনটা না করা হয়।

এসআর/এম

RTV Drama
RTVPLUS