logo
  • ঢাকা সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ২৯ চৈত্র ১৪২৭

তাদের হাতে আগ্নেয়াস্ত্র ছিল, নির্বাচন বানচাল করতেই এই হামলা: ইশরাক

বিএনপি, প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন,
বিএনপির মেয়র প্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন (ফাইল ছবি)

আওয়ামী লীগ ধানের শীষের জনপ্রিয়তায় ভীত। সেজন্য নির্বাচন বানচাল করতে বিনা উসকানিতে এই হামলা করেছে তারা। হামলার সময় তাদের হাতে আগ্নেয়াস্ত্র ছিল এবং গুলির শব্দও শোনা গেছে। এতে ২-৩ জন ক্যামেরাপারসনসহ বেশ ক’জন আহত হয়েছেন।

বললেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন।

রোববার (২৬ জানুয়ারি) দুপুর ১টার দিকে গোপীবাগ এলাকায় সংঘর্ষের ঘটনাটির পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ইশরাক এ কথা বলেন।

বেশ কিছুক্ষণ দু’পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে পুলিশ। পুলিশের কর্মকর্তারা বলছেন, ওই এলাকায় আওয়ামী লীগের প্রার্থীর প্রচারণাও ছিল। দু’পক্ষ মুখোমুখি হয়ে পড়ায় এ সংঘর্ষ বেঁধেছে।

ইশরাক বলেন, আমাদের গণসংযোগের কর্মসূচি ছিল মতিঝিল হয়ে ইত্তেফাক মোড় এলাকায়। সেখান থেকে বাসায় (গোপীবাগ) ফিরছিলাম। তখন জানতে পারি আমাদের এক কর্মীকে (আওয়ামী লীগের কর্মীরা) আটক করে রেখেছে। তাকে ছাড়াতে এগিয়ে গেলে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়।

বিএনপির এ মেয়র প্রার্থী বলেন, তারা আমাদের জনপ্রিয়তায় ভীত। সেজন্য নির্বাচন বানচাল করতে বিনা উসকানিতে এ হামলা চালিয়েছে। হামলার সময় তাদের হাতে আগ্নেয়াস্ত্রও ছিল। এমনকি ফেরার সময় গুলির আওয়াজও শুনতে পাই। এতে ২-৩ জন ক্যামেরাপারসনসহ ৭-৮ জন আহত হয়েছেন। আমার দিকেও ইট-পাটকেল ছোড়া হয়েছে, আমার নেতাকর্মীরা সেসব থেকে আমাকে রক্ষা করেছেন।

বিএনপির কর্মীরা গুলি করেছেন বলে অভিযোগের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে ইশরাক বলেন, গুলি করতে হলে তো অস্ত্র থাকা লাগবে। আমাদের হাতে অস্ত্র আছে? এই আওয়ামী লীগ সরকারের সময় আমাদের হাতে অস্ত্র থাকতে পারে? বরং আওয়ামী লীগের লোকদের হাতে অস্ত্র ছিল।

এসজে/পি

RTV Drama
RTVPLUS
  • ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন ২০২০ এর পাঠক প্রিয়