logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬

বছর শুরুতে আশা জাগাচ্ছে শেয়ারবাজার

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০৩ জানুয়ারি ২০১৯, ১৭:৩২ | আপডেট : ০৩ জানুয়ারি ২০১৯, ১৮:০৫
২০১৮ সাল কিছুটা মন্দা হলেও নতুন বছরের শুরুতে আশা জাগাচ্ছে দেশের শেয়ারবাজার। ভোটের পর  সেই ধারায় পার করছে বাজার।

bestelectronics
আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে টানা ঊর্ধ্বমূখী ছিল বাজার। এদিন বাজারে সূচকের পাশাপাশি আরও এক দফা বেড়েছে লেনদেন। বাজারমুখী হতে শুরু করেছেন বিনিয়োগকারীরা।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, টানা ৪ কার্যদিবস ধরে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচকের উত্থানে লেনদেন শেষ হয়েছে। আজ সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে লেনদেনের শুরু থেকেই ক্রয় প্রেসারে টানা বাড়তে থাকে সূচক। লেনদেন শেষে সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ার দর।

টাকার অংকেও লেনদেন আগের দিনের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। আজ দিন শেষে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৯২৪ কোটি ৯০ লাখ ৯২ হাজার টাকা; যা প্রায় ৪ মাসের সর্বোচ্চ লেনদেন। এর আগে গত বছরের ১৩ সেপ্টেম্বর ডিএসই’তে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৬৪ কোটি টাকা।

আজ দিন শেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স আগের দিনের চেয়ে ৯৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৫ হাজার ৫৯০ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ২১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে এক হাজার ২৭১ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ২৯ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে এক হাজার ৯৪১ পয়েন্টে।

দিনভর লেনদেন হওয়া ৩৪৫টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৩০৩টির, কমেছে ৩৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৯টির।

এর আগের কার্যদিবস দিন শেষে ডিএসইর ব্রড ইনডেক্স ৩১ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে ৫ হাজার ৪৯৬ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে এক হাজার ২৪৯ পয়েন্টে এবং ডিএসই ৩০ সূচক ৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করে এক হাজার ৯১২ পয়েন্টে।

ওইদিন লেনদেন ছিল ৬৯৬ কোটি ৪৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা।

সে হিসেবে আজ ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ২২৮ কোটি ৪৫ লাখ ২২ হাজার টাকা বা ৩২.৮০ শতাংশ।

এদিকে দিন শেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সাধারণ মূল্য সূচক সিএসইএক্স ১৮৮ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১০ হাজার ৩৮২ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২৭৫টি কোম্পানির ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ২৩৮টির, কমেছে ২৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৩টির।

এ বাজার আজ লেনদেন হয়েছে ৭০ কোটি ১৮ লাখ ৬২ হাজার টাকা।

নতুন বছরে বাজার প্রসঙ্গে ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এ এম মাজেদুর রহমান বলেন, ২০১৮ সালে কৌশলগত বিনিয়োগকারীদের কাছে শেয়ার বিক্রি ছিল এক ঐতিহাসিক ঘটনা। বছরের বেশিরভাগে সময়ে আমরা এ কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিলাম। এজন্য নতুন আর কোনও উদ্যোগ বাস্তবায়ন হয়নি।  

তিনি বলেন, ২০১৯ সালে ডিএসইতে বেশ কিছু উদ্যোগ বাস্তবায়ন হবে। আশা করছি, বাজারের সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা এর সুফল পাবেন।  

আরও পড়ুন :

এসআর

bestelectronics bestelectronics
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়