Mir cement
logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

ফের সার-জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর সুপারিশ

সারের দাম বাড়ানোর সুপারিশ

কয়েকদিন আগেই বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার অজুহাতে দেশের বাজারে ডিজেল ও কেরোসিন লিটারে ১৫ টাকা বাড়ানো হয়েছে। আবারও বাজেট ঘাটতি সহনীয় রাখতে সার ও জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়েছে।

বুধবার (২২ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামালের সভাপতিত্বে জাতীয় কো-অর্ডিনেশন কাউন্সিলের সভায় এ সুপারিশ করা হয়।

অর্থ বিভাগের পক্ষ থেকে সুপারিশে সার ও জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর পাশাপাশি আগামী অর্থবছরের জন্য মোট দেশজ উৎপাদন বা জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার ৭ দশমিক ৫ শতাংশ নির্ধারণের কথা বলা হয়।

জাতীয় কো-অর্ডিনেশন কাউন্সিলের সভায় বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির, অর্থ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব আবদুর রউফ তালুকদার, এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিমসহ অর্থ বিভাগের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্টরা জানান, চলতি অর্থবছরের জন্য জিডিপির যে প্রবৃদ্ধি প্রাক্কলন করা হয়েছে, তা অর্জিত হবে হতে পারে। সেই জন্য সংশোধিত বাজেটে তা অপরিবর্তিত রাখা হবে। আগামী এপ্রিলে সংশোধিত বাজেট চূড়ান্ত করা হবে।

উচ্চ প্রবৃদ্ধির ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে আগামী ২০২২-২৩ অর্থবছরে জিডিপি ৭ দশমিক ৫ শতাংশ নির্ধারণের প্রস্তাব দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের দাম বেড়ে যাওয়ায় বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনকে ভর্তুকি দিতে হচ্ছে। এ ছাড়া সারের দামও বেড়ে গেছে বিশ্ববাজারে। সেজন্য দেশের বাজারে সারের দাম বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়েছে।

এবার বাজেটে কৃষিতে ভর্তুকি দেয়া হয়েছে ৬ হাজার কোটি টাকা। বিশ্ববাজারে সার ও জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় এ খাতে অতিরিক্ত দেড় থেকে দুই হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি লাগতে পারে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, বাড়তি ভর্তুকির চাপ কমাতে সার ও জ্বালানি তেলের দাম সমন্বয় করা ছাড়া বিকল্প পথ নেই। এটি যত দ্রুত সম্ভব সমন্বয় করা দরকার।

এফএ/টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS