logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭

‘গরু বিক্রি করতে না পারলে নিঃস্ব হয়ে যাব’ (ভিডিও)

আরটিভি নিউজ
|  ২৩ জুলাই ২০২০, ১৫:২৮ | আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২০, ১৬:০৯
কদিন পরই কুরবানি ঈদ। কিন্তু লোকসানের শঙ্কায় দিন পার করছেন খামারিরা।  বৈশ্বিক মহামারিতে ঝিনাইদহে বন্ধ আছে পশুর হাট। কুষ্টিয়াতে সাপ্তাহিক গরুর হাটও ক্রেতা শূন্য।  ক্রেতা না থাকায় এবারের কোরবানিতে লাভ নিয়ে চিন্তিত খামারিরা। 

কোরবানি ঈদ উপলক্ষে পালন করা গরু নিয়ে আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন ঝিনাইদহ ও কুষ্টিয়ার খামারিরা। একদিকে গোখাদ্যের চড়া দাম।  অন্যদিকে করোনায় পশু হাট বন্ধ ও ক্রেতা সংকট হওয়ায় দুশ্চিন্তায় খামার সংশ্লিষ্ট সবাই।

ঝিনাইদহের সবচেয় বড় গরু যুবরাজের মালিকসহ অন্যান্য সব খামারিরা লোকসানের শঙ্কা নিয়ে দিন কাটাচ্ছেন। করোনার কারণে ক্রেতা না থাকায় গরু বিক্রি করা নিয়ে চিন্তিত খামারিরা। 

যুবরাজের মালিক জানান, খামারে বর্তমানে যে গরুটা রয়েছে তার নাম যুবরাজ। ওয়েট ৫০ মণের ওপরে। আরেক খামারি জানান, কমবেশি মাঠ, ঘাট থেকে যা আয় করি তাই এই গরুকে খাওয়াই। খাইয়ে যদি এই গরুকে বিক্রি করতে না পারি তাহলে জীবনে নিঃস্ব হয়ে যাব।

আগামী ২৩ অথবা ২৫ জুলাই থেকে ঈদের আগ পর্যন্ত একটানা গরুর হাট খোলা রাখা হবে জানিয়ে
ঝিনাইদহের জেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা ডা. আনন্দ কুমার অধিকারী জানান, ঈদের এক সপ্তাহ আগে হাটগুলো ওপেন করা হবে এবং এই হাটগুলো চলবে একটানা ঈদ পর্যন্ত।  আমাদের পরামর্শ হচ্ছে যে গরুগুলো বিক্রয়যোগ্য সেগুলোকে বিক্রি করতে হবে, যদি দেখি যে প্রচুর সংখ্যক গরু অপেক্ষিত রয়ে গেছে তখন সরকারি সিদ্ধান্ত মোতাবেক আমরা ব্যবস্থা নেবো।

এদিকে কুষ্টিয়ার হাটগুলোতে ক্রেতাদের উপস্থিতি একেবারেই কম। বেচা কেনা নেই, ফলে দাম পাবেন না খামারিরা। এসময় ভারত থেকে গরু  আসলে একদম পথে বসতে হবে তাদের।

কুষ্টিয়ার খামারিরা জানান, লোক সমাগম হবে যার কারণে তারা হাটে আসতে ইচ্ছুক না। এতে আমাদের গরুগুলো হাটে বিক্রি করা খুবই কষ্টসাধ্য ব্যাপার। এ বছর কুষ্টিয়ায় সবচেয়ে নিরাপদ ও স্বাস্থ্যসম্মত উপায়ে কোরবানির পশু মোটাতাজা করা হয়েছে।

কুষ্টিয়ার জেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা  ডা. মো. সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ৩৮ হাজার খামারি প্রায়ই ১ লাখ ৫০০০ গরু হৃষ্টপুষ্ট করেছে।  আমরা বিভিন্ন ফার্ম ভিজিট করতে গিয়ে দেখেছি সবগুলো গরু নিরাপদ স্বাস্থ্যসম্মত উপায়ে কোরবানির জন্য তৈরি করা হয়েছে।

মোটাতাজাকরণের ঐতিহ্যবাহী এ শিল্পকে টিকিয়ে রাখতে হলে এবছর খামারি-কৃষকদের লোকসানের হাত থেকে রক্ষায় কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণের দাবী সংশ্লিষ্টদের।

এনএম/ এসএস

RTVPLUS
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ২০৬৬৪৯৮ ১৫৩০৮৯ ৩৫১৩
বিশ্ব ২০৫৫৩৩২৮ ১৩৪৬৫৬৪২ ৭৪৬৬৫২
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়