logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

করোনা আপডেট

  •     গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ৩৫ জন, আক্রান্ত ২৪২৩ জন, সুস্থ হয়েছেন ৫৭১ জন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

আম্পানের প্রভাবে বরগুনায় বেড়েছে বিভিন্ন নদীর পানি

বরগুনা প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন
|  ২০ মে ২০২০, ১৩:৪৮ | আপডেট : ২১ মে ২০২০, ২২:৪৩
Ampan Barguna River
ছবি সংগৃহীত
ঘূর্ণিঝড় আম্পানের প্রভাবে বরগুনার পায়রা, বিষখালী ও বলেশ্বর নদীর পানির উচ্চতা বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে বিকেল পাঁচটার দিকে দ্বিতীয় জোয়ারের সময় আম্পানের প্রভাবে আরও বেশি পানি হওয়ার পাশাপাশি বড় বিপদের আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসী।

বরগুনার বড়ইতলা ফেরিঘাটের বাসিন্দা আবদুল খালেক বলেন, বিষখালী নদীর এই এলাকায় জোয়ারের পানি এতটাই বৃদ্ধি পেয়েছে যে ফেরির গ্যাংওয়েসহ সংযোগ সড়ক তলিয়ে গেছে। তিনি বলেন, জোয়ারের উচ্চতা স্বাভাবিকের থেকে পাঁচ থেকে সাত ফুট বেশি না হলে এখানে সাধারণত পানি ওঠে না।

পচাকোড়ালিয়া ইউনিয়নের ফয়সাল সিকদার বলেন, পায়রা নদীতে প্রচণ্ড ঢেউ শুরু হয়েছে। সেইসঙ্গে জোয়ারের উচ্চতাও বৃদ্ধি পেয়েছে অনেক। এই উচ্চতা বেড়েই চলছে। তিনি আরও বলেন, পানির উচ্চতা এভাবে বৃদ্ধি পেতে থাকলে এই এলাকার বেড়িবাঁধ ভেঙে লোকালয়ে পানি প্রবেশ করতে বেশি সময় লাগবে না।

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার ঈদগাহ মাঠসংলগ্ন বিষখালী নদীর তীরের বাসিন্দা আব্দুস সালাম

বলেন, স্বাভাবিকের তুলনায় নদীতে অনেক পানি বেড়েছে। আর একটু পানি বৃদ্ধি পেলেই আমাদের ঘর-বাড়ি পানিতে ডুবে যাবে।

এ বিষয়ে বরগুনার পানি উন্নয়ন বোর্ডের পানি পরিমাপক মো. মাহতাব হোসেন বলেন, সকাল এবং দুপুরের দিকে এসব নদীর পানি যেটুকু বৃদ্ধি পেয়েছে তা স্বাভাবিক জোয়ারের থেকে অনেক বেশি। আজ সকাল নয়টায় বরগুনায় জোয়ারের উচ্চতা ছিল ২.৮৫ সেন্টিমিটার।

যা বিপদসীমার সমান সমান। আর এক ঘণ্টার ব্যবধানে সকাল দশটায় বরগুনায় জোয়ারের পানির উচ্চতা বৃদ্ধি পেয়ে ৩.১০ সেন্টিমিটার হয়েছে। তিনি আরও বলেন, এই মুহূর্তে বরগুনার প্রধান তিনটি নদীতে বিপদসীমার ২৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। তবে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে রাতের জোয়ারে আরও বেশি পানি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে বরগুনার জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ আরটিভি অনলাইনকে বলেন, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে ১০ থেকে ১৫ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাস হতে পারে বলে আবহাওয়া অধিদপ্তর আগেই আমাদের সতর্ক করেছে।

জেলায় ৮০০ কিলোমিটার বেড়িবাঁধের মধ্যে ২০ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় ছিল যা আমরা মেরামত করতে সক্ষম হয়েছি। তিনি আরও বলেন, বরগুনার প্রধান তিনটি নদীতে জোয়ারের উচ্চতা ইতোমধ্যেই বৃদ্ধি পাওয়ার খবর আমি পেয়েছি। তবে এখন পর্যন্ত কোথাও লোকালয় প্লাবিত হওয়ার খবর পাইনি।

জেবি

RTVPLUS
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৫৭৫৬৩ ১২১৬১ ৭৮১
বিশ্ব ৬৫৬৮৫১০ ৩১৬৯২৪৩ ৩৮৭৯৫৭
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়