logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

করোনা আপডেট

  •     গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃত্যু ১৫ জন, আক্রান্ত ২০২৯ জন সুস্থ ৫০০ জন, নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৯৩১০টি: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

চিকিৎসা ও খাদ্যসামগ্রী নিয়ে অসহায়দের পাশে চিকিৎসকরা

জয়পুরহাট প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন
|  ০৫ এপ্রিল ২০২০, ১৫:১৪
চিকিৎসা ও খাদ্যসামগ্রী নিয়ে অসহায়দের পাশে চিকিৎসকরা
জয়পুরহাটে করেনাভাইরাসের কারণে শ্রমজীবী মানুষরা এখন কার্যত ঘরবন্দি অবস্থায় মানবেতর দিন কাটাচ্ছেন, বিশেষ করে যারা দিন মজুর, তাদের অবস্থা আরও করুন। এমন অনিশ্চিত ভবিষ্যতের শিকার অসহায় মানুষগুলোর জন্য সরকারি অনুদানের ঘোষণা থাকলেও ত্রাণ সামগ্রী পৌঁছাচ্ছে ধীরগতিতে। এ অবস্থায় কিছু ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনকে দেখা গেছে অসহায় মানুষদের পাশে যারা করোনা চেয়ে ক্ষুধার আতঙ্কে উৎকন্ঠায় রয়েছেন।

এই মানবিক সেবার উদ্দেশ্যে জয়পুরহাট বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ) ও স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) এক দল চিকিৎসক চিকিৎসা ও খাদ্য সামগ্রী নিয়ে  করোনার কারণে বর্তমানে কর্মহীন ও অসহায় মানুষদের বাড়ি বাড়ি যাচ্ছেন। দু’টি চিকিৎসক সংগঠনের নেতারা আর্থিকভাবে অক্ষম মানুষদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা, পরামর্শ দেয়ার পাশাপাশি প্রতি জনকে ৫ কেজি চাল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি লবণ, আধা কেজি ভোজ্য তেল ও ১টি সাবান দিয়ে যাচ্ছেন। 

রোববার (৫ এপ্রিল) সকাল থেকে এ কর্মসূচি শুরুর দিনে ১৫০ জনকে মানবিক সহায়তা দেয়া হয়। এ ধরনের মানবিক সহায়তা এই দুযোর্গকাল পর্যন্ত চালিয়ে যাবেন বলে জানান চিকিৎসক নেতারা।

হত দরিদ্রদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কাজে অংশ গ্রহন করেন- বিএমএ জয়পুরহাট জেলা শাখার সভাপতি ডা. মোজাম্মেল হক, সাধারণ সম্পাদক ডা, কে এম জোবায়ের গালীব, স্বাচিপ এর জয়পুরহাট জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক ডা. আনোয়ার হোসেন, সহকারি অধ্যাপক  (মেডিসিন) ডা. আব্দুর রাজ্জাকসহ দুটি চিকিৎসক সংগঠনের সদস্যরা।

বাস টার্মিনাল এলাকার বৃদ্ধা ছফুরা বেগম জানান, ‘বাবা প্রতি দিন সন্ধ্যায় রাস্তার মোড়ে সিদ্ধ ডিম ও পেঁয়াজ, ঝাল ও সরিষার তেল দিয়ে ভাজা ডিম বিক্রি করে যা আয় হতো তা দিয়ে সংসার চালাতাম, কিন্তু করুনা (করোনা) ডাইনি সর্বনাশ করল, এখন ঘরে থাকতে হচ্ছে, পেট তো আর চলে না রে বাবা, এই ডাক্তার বাজানরা যা দিলো তা ক’দিন চলবে।

জয়পুরহাট রেলবস্তির আসলাম, সিমেন্ট ফ্যাক্টরি সড়কের হারুন মিয়া, স্টেশন সড়কের ভ্রাম্যমাণ ভিক্ষুক আমেছা বিবিসহ অনুদান প্রাপ্ত অনেকে এমন মন্তব্য করে বলেন, বিভিন্ন স্থানে সরকারি  অনুদান দেওয়ার কাজ চললেও তাদের মত অনেকে এখনো সেই সহায়তা পাননি। তাই করোনাভাইরাস মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত তারা প্রয়োজন মতো সরকারি-বেসরকারি ত্রাণ সামগ্রীর দাবী জানান।

এসএস

RTVPLUS

সংশ্লিষ্ট সংবাদ : করোনাভাইরাস

আরও
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৪০৩২১ ৮৪২৫ ৫৫৯
বিশ্ব ৫৭৮৮৯২৮ ২৪৯৭৯৫৩ ৩৫৭৪২৬
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়