logo
  • ঢাকা সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৬

করোনা আপডেট

  •     ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৭২ জনসহ মোট আক্রান্ত ৩৩৭৪, মৃত্যু ১১ জনসহ বেড়ে ৭৯: স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে একদিনে রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত ১৮ জন, মৃত্যু ১, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ৫৫ জন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী। আক্রান্তের সংখ্যায় সবার উপরে যুক্তরাষ্ট্র যার সংখ্যা ৩ লাখ ৮ হাজার ৬০৮ জন, মৃত্যু হয়েছে ৮ হাজার ৩৯৭ জনের, বিশ্বব্যাপী মোট মৃত্যু ৬৪ হাজার ৬৬৭ জনের, সাড়ে ১২ লাখেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত: ওয়ার্ল্ডোমিটার। সবচেয়ে খারাপ অবস্থা নিউইয়র্কের, আক্রান্ত ১ লাখ ১৪১৭৪, মৃত্যু ২৬২৪ জন: সিএএএন।

চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে রিসিপশন কর্মীকে চিকিৎসকের ধর্ষণ

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন
|  ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৮:২৮ | আপডেট : ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৯:০৩
ধর্ষণ চিকিৎসক সাতক্ষীরা
প্রতীকী ছবি
ক্লিনিকের রিসিপশনিস্ট এক মেয়েকে কোমলপানীয়র মধ্যে চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে ধর্ষণের অভিযোগে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসক রিয়াজুল ইসলামকে (২৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গতকাল শুক্রবার রাতে নির্যাতনের শিকার ওই নারী বাদী হয়ে ধর্ষক রিয়াজুলসহ তিনজনের বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা করলে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

রিয়াজুল ইসলাম জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার বন্দিপুর গ্রামের আনসার আলীর ছেলে এবং সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইন্টার্নি চিকিৎসক।

এ মামলার অপর দুই পলাতক আসামিরা হলেন, কালীগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর গ্রামের কামাল হোসেনের ছেলে আব্দুল্লাহ আল মামুন (২৬) ও সদর উপজেলার বাঁকাল গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে মিজানুর রহমান মিঠুন (৩৬)।

মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গেলো ১০ ফেব্রুয়ারি মেয়েটি শহরের পলাশপোল এলাকার শিমুল মেমোরিয়াল ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে রিসিপশন বিভাগে যোগদান করেন। যোগদানের পর থেকে চিকিৎসক রিয়াজুল তাকে বিভিন্ন সময়ে বিয়ের প্রলোভনসহ কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরই জেরে গেলো বুধবার রাতে ওই ক্লিনিকের পঞ্চমতলায় দুই নম্বর আসামি আব্দুল্লাহ আল মামুনের সহযোগিতায় চিকিৎসক রিয়াজুল তাকে কোমলপানীয়র মধ্যে চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে ধর্ষণ করে।

ঘটনাটি ক্লিনিক মালিক তিন নম্বর আসামি মিজানুর রহমান মিঠুনকে জানানোর পর তিনি বিষয়টি সমঝোতা করবেন বলে সময় ক্ষেপণ করতে থাকেন এবং টাকা নিয়ে বিষয়টি মীমাংসার প্রস্তাব দেন। কোনও উপায় না পেয়ে অবশেষে শুক্রবার রাতে মেয়েটি ধর্ষক ইন্টার্ন চিকিৎসক রিয়াজুলসহ তিনজনের নামে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় ইতোমধ্যে ওই ইন্টার্ন চিকিৎসককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মেয়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে গ্রেপ্তারকৃত চিকিৎসকের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি আরও জানান, এ মামলার অপর দুই পলাতক আসামিকে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

জেবি/পি

corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৮৮ ৩৩
বিশ্ব ১২৩৭৪২০ ২৫২৯৪৪ ৬৭২৬০
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়