logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ৫ মাঘ ১৪২৭

শব্দদূষণে সিএমপির নিষেধাজ্ঞা

শব্দদূষণ সিএমপি জনস্বাস্থ্য
প্রতীকী ছবি
চট্টগ্রাম মহানগরীতে জনস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর  শব্দদূষণ ও  দূষণের ক্ষেত্র সৃষ্টিকারী সকল কর্মকাণ্ডের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে পুলিশ।

গতকাল সোমবার  সিএমপি কমিশনার মো. মাহবুবর রহমান নিজ ক্ষমতাবলে এ আদেশ জারি করেন। তবে সকল ধর্মীয় অনুষ্ঠান এই নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে।

পুলিশ কমিশনারের আদেশে বলা হয়, ১৯৭৮ সালের চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ অধ্যাদেশের ৩৩ ধারার প্রদত্ত ক্ষমতাবলে  চট্টগ্রাম নগরীতে শব্দদূষণ ও জনদুর্ভোগ রোধকল্পে চট্টগ্রাম মহানগরীর সকল স্থানে ও যানবাহনে সকল প্রকার উচ্চমাত্রার শব্দ উৎপাদনকারী যন্ত্রের ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হয়।

কণ্ঠ বা বাদ্যযন্ত্রের সাহায্যে গান-বাজনা। অন্যান্য শব্দের শক্তি বৃদ্ধির জন্য মাইক্রোফোন, লাউড স্পিকার ও অন্য কোনও যন্ত্র ব্যবহার করা। নির্মাণ কাজের সময় বিকট শব্দ হয় এ রকম কোনও যন্ত্র ব্যবহার করা। বিনা কারণে হর্ন বাজানো, হাইড্রোলিক হর্নের ব্যবহার, রেসিং কার ও রেসিং মোটরসাইকেলে চালানো নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

তবে একই আদেশে সকল ধর্মীয় অনুষ্ঠান ও রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্সের ক্ষেত্রে এ আদেশ কার্যকর করা যাবে না বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।

পুলিশ কমিশনারের আদেশে আরও বলা হয়, যেহেতু শব্দদূষণ স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। উচ্চমাত্রার শব্দ কানের ক্ষতি সাধন করে এবং বিভিন্ন স্বাস্থ্য ঝুঁকির সৃষ্টি করে। উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ ও কতিপয় রোগের ক্ষেত্রে উচ্চমাত্রার শব্দ ভীষণ ক্ষতিকর।

বিশেষ করে দীর্ঘ সময় ধরে উচ্চমাত্রার শব্দ ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। শিশু বৃদ্ধ ও অসুস্থ ব্যক্তিরা এর দ্বারা বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হন। উচ্চমাত্রার শব্দ একদিকে যেমন দূষণ তেমনি জনদুর্ভোগের কারণ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার আবু বকর সিদ্দিক আরটিভি অনলাইনকে বলেন , উচ্চমাত্রার শব্দ একদিকে যেমন দূষণ তেমনি জনদুর্ভোগের কারণ । জনস্বার্থ বিবেচনা করে পুলিশ কমিশনার এই নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন।

জেবি

RTV Drama
RTVPLUS