logo
  • ঢাকা শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৯ ফাল্গুন ১৪২৬

ভুয়া ১০ পরীক্ষার্থীসহ মাদরাসা সুপার গ্রেপ্তার, ২ বছরের জেল

ভোলা প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন
|  ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৭:৩৩
ভুয়া ১০ পরীক্ষার্থীসহ মাদরাসা সুপার গ্রেপ্তার, ২ বছরের জেল
ভোলার দৌলতখান সরকারি আবু আব্দুল্লাহ কলেজ কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত দাখিল পরীক্ষা চলাকালে ভুয়া ১০ পরীক্ষার্থীসহ এক মাদরাসা সুপারকে আটক করা হয়েছে। 

আজ মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারি) পরীক্ষা চলাকালে এদের শনাক্ত করাসহ আটকের নির্দেশ দেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক ও শিক্ষা) আতাহার মিয়া। 

আটক মাদরাসা সুপারের নাম মো. জাকির হোসেন। তিনি জয়নগর বালিকা দাখিল মাদরাসার সুপার। তাৎক্ষনিক ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা নির্বাহী অফিসার জীতেন্দ্র নাথ অভিযুক্ত মাদরাসা সুপার মো. জাকির হোসেনকে দুই বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেন। 

অভিযোগ রয়েছে ওই সুপার তার প্রতিষ্ঠানে ভুয়া নামে নিবন্ধন করিয়ে পরে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ছাত্রীদের দিয়ে নিবন্ধিত নামে দাখিল পরীক্ষা দেয়ার ব্যবস্থা করেন। এসব বহিরাগত ও ভুয়া পরীক্ষার্থীদের কেউ কেউ স্নাতক ক্লাসের, কেউবা অষ্টম বা নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জীতেন্দ্র নাথ জানান, সুপার জাকির হোসেনের এমন অপকর্ম বিষয়টি প্রথমে গোপন সূত্রে তারা জানতে পারেন। পরে পরীক্ষার হলে এদের পরীক্ষা দেয়া অবস্থায় আটক করা হয়। 

আটক ভুয়া পরীক্ষার্থীরা হলো- লিজা আক্তার (আঁখি বেগম নামে পরীক্ষা দিচ্ছিল), নিয়ানা আক্তার (ফাতেমা বেগম নামে), রাবেয়া সুলতানা (উন্মে হাবিবা), ময়না আক্তার (সুমাইয়া আক্তার), হামিদা বেগম (আসমা বেগম), নাজমুন নাহার (শিলা আক্তার), মোহাম্মদ জয়ের মেয়ে বিবি খাদিজা (খাদিজা বেগম), রুমা বেগম (নুপুর বেগম), ইমা আক্তার (বিবি হাজেরা), ফারজানা আক্তার (সাদিয়া আক্তার নামে পরীক্ষা দেয়)।

এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়