logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ১৫ মাঘ ১৪২৭

জোর করে ত্রাণের টিন রেখে দিলো জেপি নেত্রী

পিরোজপুর প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন
|  ০৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৮:৩৫ | আপডেট : ০৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৮:৪৪
টিন জোর নেত্রী
ছবি: সংগৃহীত
পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্ত এক অসহায় মহিলার সাহায্যের টিন রেখে দিয়েছে জেপি নেত্রী আমেনা বেগম।

গেল সোমবার  উপজেলায় ঘূর্ণিঝড় বুলবুলে ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে  দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে প্রত্যেককে  এক বান্ডিল ঢেউটিন ও তিন হাজার টাকা করে বিতরণ করেন

 জাতীয় পার্টির (জেপি) চেয়ারম্যান ও পিরোজপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ার হোসেন মঞ্জু।

উপজেলার কলারণ গ্রামের আ. ছালামের স্ত্রী পাখি বেগম বিতরণকৃত টিন বাড়ি নিয়ে যাওয়ার পথে উপজেলা মহিলা জেপির সহ-সভাপতি মোসা. আমেনা বেগম  সেগুলো জোর করে রেখে দেন।

ত্রাণের টিন নিয়ে যাওয়ার সময় পাখি বেগমকে আমেনা বেগম বলেন, ‘তালিকায় তোমার নাম দিয়েছি আমি। পরে দেখলাম ঘূর্ণিঝড়ে তোমার কোনও ক্ষতি হয়নি। আমি তোমাকে টিন নিতে দেব না। বরাদ্দকৃত তিন হাজার টাকার মধ্যে এক হাজার টাকা তোমাকে খরচবাবদ দেব।’

পরে ক্ষতিগ্রস্ত নারী পাখি বেগম স্থানীয় সাংবাদিকদসহ এলাকার মুরব্বিদের কাছে এ বিষয়ে অভিযোগ করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয়রা জানান, একই এলাকার এক ঘরে মা ছালেহা এবং ছেলে জামালকে ত্রাণের টিন ও টাকা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তাদের বুলবুলে কোনও ক্ষতি  হয়নি। যাদের দরকার তাদের না দিয়ে দলীয়ভাবে টিন দেওয়া হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত পাখি বেগম জানান, আমি বাড়ি যাওয়ার সময় আমেনা বেগম তার বাড়ির সামনে বসে আমার ভ্যান থামিয়ে জোর করে টিন রেখে দিয়েছে। এ ব্যাপারে কাউকে কিছু না বলার জন্যও হুমকি দিয়েছেন তিনি।

অভিযুক্ত জাতীয় মহিলা পার্টির (জেপি) নেত্রী আমেনা বেগম আরটিভি অনলাইনকে জানান, আমি টিন রাখিনি। সকালে নিয়ে যাবে বলে আমার কাছে  রেখে গেছে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. শফিকুল ইসলাম আরটিভি অনলাইনকে জানান, আমরা ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তির হাতে টিন ও তিন হাজার টাকার চেক দিয়েছি। পথ থেকে টিন রেখে দেওয়ার কথা শুনেছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়