logo
  • ঢাকা বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

পাগলীটি মা হলেও নবজাতকের বাবা পাওয়া যাচ্ছে না

ফরিদপুর প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন
|  ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ১৬:৫৮ | আপডেট : ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ১৭:৩০
পাগলী প্রসূতি নবজাতক
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন প্রসূতি ও নবজাতক
ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলা থেকে মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারীকে তার নবজাতক কন্যাসহ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার ভোরে উপজেলার বারাংকুলা গ্রামের জয়দেবপুর বাজার থেকে নাম পরিচয়হীন ওই নারী ও তার নবজাতককে উদ্ধার করে স্থানীয়রা।

পরে তাকে বোয়ালমারী  উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানে প্রসূতি ও শিশুটির শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

জানা যায়, গতকাল শুক্রবার ভোরে জয়দেবপুর বাজারে সন্তান প্রসব করেন ওই নারী। এ সময় স্থানীয়রা মহিলা গ্রাম পুলিশ শিরিনা বেগমকে খবর দিলে তিনি মা ও শিশুকে তার বাড়িতে নিয়ে রাখেন। খবর পেয়ে ‘দৈনিক আমাদের সময়’বোয়ালমারী প্রতিনিধি খান মুস্তাফিজুর রহমান সুমন ও ‘দৈনিক ঢাকা টাইমস’এর বোয়ালমারী প্রতিনিধি আমীর চারু বাবলু ঘটনাস্থলে গিয়ে ‘জানা সমাজকল্যাণ সংস্থা’নামে একটি সমাজকল্যাণ সংস্থার সাহায্য নিয়ে এবং আলফাডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রাশেদুর রহমানের সহযোগিতায় বোয়ালমারী উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন।

বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তাপস বিশ্বাস আরটিভি অনলাইনকে বলেন, মানসিক ভারসাম্যহীন প্রসূতি রাস্তার ওপর সন্তান প্রসব করায় নবজাতকের কপালে আঘাত লাগে। এছাড়া অপরিপক্ক বাচ্চা প্রসব হওয়ায় কিছু সমস্যা আছে। মায়ের রক্তক্ষরণও বন্ধ হচ্ছে না। সেজন্য তাদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আলফাডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রাশেদুর রহমান জানান, বর্তমানে নবজাতক ওই শিশু ও মাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। আমরা সার্বক্ষণিক খোঁজ-খবর নিচ্ছি। নবজাতক শিশুটি সুস্থ হয়ে উঠলে শিশুর বিষয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নিব।

নবজাতক শিশু ও তার মায়ের চিকিৎসাসহ সার্বিক সহায়তার দায়িত্ব নিয়েছে ‘জানা সমাজকল্যাণ সংস্থা’।

আরো পড়ুন

জেবি/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়