logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২০, ১৫ মাঘ ১৪২৭

সুনামগঞ্জে ট্রলারডুবির ঘটনায় আরও ৪ মরদেহ

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
|  ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:৩৫ | আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:৪১
বিল, নৌকাডুবি, মৃত্যু
সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে আত্মীয় বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে ঝড়ের কবলে পড়ে ইঞ্জিনচালিত ট্রলারডুবির ঘটনায় কাইল্যাকুটা (কালিয়াকুটা) বিল থেকে চার শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনও নিখোঁজ রয়েছেন নারী, শিশু, পুরুষসহ কমপক্ষে ১৯ জন।

মঙ্গলবার রাত সোয়া ১০টার দিকে দিরাই উপজেলার রফিনগর ইউনিয়নের চার নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য কুটি মিয়া  এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ট্রলারডুবির ঘটনার বরাত দিয়ে ওই ইউপি সদস্য জানান, উপজেলার রফিনগর ইউনিয়নের মাছিমপুর গ্রাম থেকে গ্রামের হাবলু মিয়ার পরিবারের লোকজন  পার্শ্ববর্তী চরনাচর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামে ফিরোজ মিয়ার ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে একটি ছাউনিবিহীন খোলা ইঞ্জিনচালিত ট্রলারে মঙ্গলবার বিকেলে মাছিমপুর থেকে পেরুয়া গ্রামের উদ্দেশে  ছেড়ে যায়। একই ট্রলারে পেরুয়ার নয়ারচর থেকে মাছিমপুর বেড়াতে আসা নারী-পুরুষ শিশুসহ ৩১ যাত্রী ছিলেন।

বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে মাছিমপুর গ্রাম থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার দূরে কাইল্যাকুটা বিলে ট্রলারটি ঝড়ের কবলে পড়ে ডুবে যায়। এতে ট্রলারে থাকা সবাই পানিতে ডুবে যেতে যেতে ১২ নারী পুরুষ সাঁতড়িয়ে তীরে ওঠেন।

রাত সাড়ে আটটার দিকে স্থানীয় ডুবুরি দল ও এলাকার লোকজন ছোট ছোট নৌকা নিয়ে বিলে তল্লাশি চালিয়ে চার শিশু সন্তানের মরদেহ বিলের পানি থেকে উদ্ধার করে তীরে নিয়ে আসেন। নিহত শিশুরা হলেন- দিরাইয়ের রফিনগর ইউনিয়নের মাছিমপুর গ্রামের বাবুলের ছেলে শামিম (২), বদরুলের প্রতিবন্ধী ছেলে আবির (৩), উপজেলার চরনাচর ইউনিয়নের নোয়ারচর গ্রামের আফজালের ছেলে সোহান (২) পেনুয়া গ্রামের ফিরোজ আলীর ছেলে আজম (২)।  

ওই ইউপি সদস্য আরও জানান, বৈরী আবহাওয়ার জন্য রাত দশটায় স্থানীয় ডুবুরি দল ও এলাকাবাসী উদ্ধার অভিযান বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছেন। ট্রলারের মাঝি সুকানি ও নিখোঁজদের পরিবারের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ওই ট্রলারে থাকা ১৯ যাত্রী এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।

এদিকে খবর পেয়ে উদ্ধার অভিযানে স্থানীয় ডুবুরি দল ও এলাকাবাসীকে সহযোগিতা করতে দিরাই থানা থেকে ওসি কেএম নজরুল ইসলাম একদল পুলিশ নিয়ে রাত দশটার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছান।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টায় সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান ট্রলারডুবিতে চার শিশুর মরদেহ উদ্ধারের তথ্য নিশ্চিত করে জানান, উদ্ধারকাজে সহযোগিতা করতে রাতে দিরাই থানার ওসির নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে। আজ সকালে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল হাওরের মধ্যে অভিযান চালিয়ে আরও চারটি মরদেহ উদ্ধার করে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা আটজন। আর নিখোঁজ দুজনের সন্ধানে ডুবুরি দল কাজ করছে। খারাপ আবহাওয়া কারণে উদ্ধার  অভিযান পরিচালনা করতে সমস্যা  হচ্ছে।

জেবি/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • দেশজুড়ে এর সর্বশেষ
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়