logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬

রাজবাড়ীতে ভয়াবহ কেমিক্যাল দিয়ে তৈরি হচ্ছে আইসক্রিম

এম. মনিরুজ্জামান, রাজবাড়ী
|  ১০ জুন ২০১৯, ১২:৪৫ | আপডেট : ১০ জুন ২০১৯, ১৩:১৭
বিএসটিআই’র অনুমোদন ছাড়াই রাজবাড়ীতে প্রায় ৩০টি কারখানায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি হচ্ছে আইসক্রিম। ক্ষতিকর রঙ, আটা ও বিভিন্ন ধরণের কেমিক্যাল মিশিয়ে তৈরি এসব আইসক্রিম খেয়ে মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়ছে শিশুসহ বিভিন্ন বয়সীরা। অথচ বিষয়টি জেনেও কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না কর্তৃপক্ষ। 
‌‌
রাজবাড়ী সদরসহ অন্য উপজেলাগুলোতে প্রায় ত্রিশটি কারখানায়  নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে অনুমোদনহীনভাবে তৈরি করা হচ্ছে মালাই আইসক্রিম।

অপরিশোধিত পানি মিষ্টি করতে যেখানে চিনির পরিবর্তে স্যাকারিন, গরুর দুধের পরিবর্তে নিম্নমানের ভেজাল গুড়ো দুধ, ক্ষতিকর রঙ আর কেমিক্যাল মেশানো হচ্ছে। এছাড়াও ধুলাবালি, শ্রমিকদের ঘাম ও নোংরা হাতের সংস্পর্শে এগুলো প্যাকেটজাত করা হচ্ছে। যদিও মালিকদের দাবি, যথাযথ নিয়ম মেনেই তারা আইসক্রিম তৈরি করছেন।

মালিকপক্ষ বলছেন, আমরা ক্ষুদ্র কারখানার মালিক। তিন মাস চালাই তারপর বন্ধ হয়ে যায়। মাঝেমধ্যে কেউ কেউ আসেন, আমাদের কাগজপত্র দেখে যান। সুন্দর পরিবেশ দেখে চলে যান। 

এ বিষয়ে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. শাহনিমা নার্গিস বলেন, যে রঙ ও কেমিক্যাল ব্যবহার করা হচ্ছে তা মারাত্মক ক্ষতিকর। অস্বাস্থ্যকর এসব আইসক্রিম খেয়ে মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়ছে শিশুসহ বিভিন্ন বয়সীরা। এতে ক্যান্সারের ঝুঁকি আছে। এছাড়া, বাচ্চাদের পড়ার প্রতি অনীহা ও মেধার ক্ষতি করতে পারে এসব ক্যামিক্যাল। 

তবে বিষয়টি জেনেও লোক দেখানো অভিযান চালানো ছাড়া জোরালো কোনেও ব্যবস্থা নিচ্ছেন না সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

এ বিষয়ে রাজবাড়ীর ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের  সহকারী পরিচাল মো. শরীফুল ইসলাম বলেন, আমরা এটা প্রতিরোধের জন্য বিভিন্ন পরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। তার বিভিন্ন সময় জরিমানা করেছি। এরপরেও তারা আমাদের কথা না শুনলে কঠিনভাবে আইনের প্রয়োগ করা হবে। 

তবে মানসম্মত খাবার তৈরি নিশ্চিত করতে অবৈধ আইসক্রিম কারখানাগুলো দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

জিএ/এসএস 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়