• ঢাকা সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৬ ফাল্গুন ১৪২৫

ঝালকাঠিতে লাশের বুকে লেখা ‘ধর্ষণের পরিণতি ইহাই’

ঝালকাঠি প্রতিনিধি
|  ০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:৪৬ | আপডেট : ০১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:৫৯
ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর উপজেলায় রাকিব নামে এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার দুপুরে উপজেলার রাজাপুর সদর ইউনিয়নের আঙ্গারিয়া গ্রামের একটি পরিত্যক্ত ভাটা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, নিহত রাকিব পার্শ্ববর্তী পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার নদমুলা গ্রামের বাসিন্দা এবং এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ মামলার আসামি। রাকিবের মাথায়, মুখে ও পিঠে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মঈনুদ্দিন জানান, দুপুরে রাকিবের মরদেহ পরে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করে। নিহতের বুকে একটি কাগজের চিরকুটে লেখা রয়েছে ‘আমি পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ার (মেয়েটির নাম দেয়া হলো না) ধর্ষক রাকিব। ধর্ষণের পরিণতি ইহাই। ধর্ষকরা সাবধান। হারকিউলিস।’

তিনি আরও বলেন, পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কে বা কারা তাকে হত্যা করে মরদেহ ফেলে গেছে, সে বিষয়ে কিছুই বলতে পারছে না পুলিশ। রাকিবের মরদেহের সঙ্গে চিরকুটে হত্যাকারী নিজের পরিচয় হিসেবে লিখে রেখে গেছে গ্রিক পুরানের বীর হারকিউলিসের নাম। পর পর দুই হত্যাকাণ্ডের পর পুলিশও বেশ ধন্ধে পড়েছে।

এর আগে গত শনিবার (২৬ জানুয়ারি) ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় সজল জমাদ্দার (২৮) নামে এক যুবকের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তার মরদেহের গলায় সুতা দিয়ে ঝোলানো একটি চিরকুটে লেখা ছিল, ‘আমার নাম সজল…মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণ করার কারণে আমার এই পরিণতি।’

আরও পড়ুন

পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়