• ঢাকা বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১
logo

স্ত্রী হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে কাঁদলেন রনি

আরটিভি নিউজ

  ১৪ জুন ২০২৪, ১৬:১৮
ছবি: সংগৃহীত

প্রায় দুই বছর আগে সিনথিয়া ইসলাম খুসবুকে বিয়ে করেন আক্কাস আলী রনি (২৬)। বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কলহ চলছিল। মঙ্গলবার (১১ জুন) রাতে ফেনী পৌরসভার চর গণেশ এলাকার ভাড়া বাসায় বাজার আনা নিয়ে তাদের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। এর জেরে বুধবার (১২ জুন) ভোরে খুসবুকে বঁটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেন আক্কাস। পরে সকাল সাড়ে সাতটার দিকে থানায় গিয়ে পুলিশকে জানিয়ে সহযোগিতা চান তিনি। তার দেওয়া তথ্যমতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সিনথিয়ার লাশ উদ্ধার করে। তাদের বাড়ি ভোলা জেলায়।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) দুপুরে সিনথিয়ার মা লিপি আক্তার আলী আক্কাস রনিসহ অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সুদ্বিপ রায় পলাশ বলেন, ‌মামলা দায়েরের পর তদন্তকারী কর্মকর্তা অভিযুক্তকে ফেনীর আদালতে হাজির করেন। পরে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. আশেকুর রহমানের আদালতে অভিযুক্ত রনি হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। একই দিন দুপুরে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিহতের ময়নাতদন্ত শেষে তার পিতা-মাতার কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।

আদালতে রনি জানায়, স্ত্রীর মানসিক অত্যচার ও শাশুড়ির হুমকি-ধমকিতে অতিষ্ঠ হয়ে তিনি স্ত্রী সিনথিয়া ইসলাম খুসবুকে খুন করেছেন। জবানবন্দি দেওয়ার সময় স্ত্রী খুশবুকে খুব ভালোবাসতেন বলে উল্লেখ করেন তিনি। হত্যাকাণ্ডের জন্য অনুতপ্ত হয়ে ম্যাজিস্ট্রেটের খাস কামরায় কান্নাকাটি করেছেন তিনি।

এর আগে সিনথিয়ার মুঠোফোন থেকে উদ্ধার হওয়া কাবিন থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ জানায়, ২০২২ সালের ১ সেপ্টেম্বর ১ লাখ টাকা দেনমোহরে ফেরিওয়ালা আলী আক্কাসকে বিয়ে করেন সিনথিয়া। চলতি বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি আক্কাসের কাছে চলে আসার পর মা লিপি বেগমকে জানান তারা বিয়ে করেছেন।

মন্তব্য করুন

  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
আদালতের নতুন সময়সূচি নির্ধারণ
ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির নির্দেশ
হত্যার হুমকি দিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ
রাজধানীতে ১৩৩ মামলায় গ্রেপ্তার ১১১৭