• ঢাকা শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১
logo

ভোট দিতে রাজি না হওয়ায় গরু কেড়ে নিলেন চেয়ারম্যান প্রার্থী

আরটিভি নিউজ

  ২৩ মে ২০২৪, ২১:৫৫
ছবি : সংগৃহীত

পটুয়াখালীর দুমকিতে আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মোটরসাইকেল মার্কার ক্যাম্পেইন যেতে ও ভোট দিতে রাজি না হওয়ায় মৎস্য বিভাগের সরকারি বরাদ্দের গরু উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ড. হারুন অর রশীদ হাওলাদার কেড়ে নিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার (২২ মে) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলা কমপ্লেক্স-সংলগ্ন সড়কে মৎস্য অফিসের দেওয়া গরুটি কেড়ে নেওয়ার ঘটনা ঘটে।

উপজেলা মৎস্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, মুরাদিয়া ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা বশির খান অসচ্ছল জেলে তালিকায় নাম থাকায় তাকে সরকারি বরাদ্দে বিনামূল্যে একটি গরু দেয় উপজেলা মৎস্য বিভাগ। বুধবার দুপুরে তাকে গরুটি দেওয়া হয়। গরু নিয়ে তার গ্রামের বাড়িতে যাওয়ার পথে বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী ড. হারুন অর রশীদ হাওলাদার মোবাইল ফোনে তার পক্ষে নির্বাচনী ক্যাম্পেইন করতে বলেন। এতে রাজি না হওয়ায় তার (উপজেলা চেয়ারম্যান) অনুগত কর্মীরা গরুটি কেড়ে নেয়।

জেলে বশির খানের অভিযোগ, গরুর বিনিময়ে বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ড. হারুন অর রশীদ হাওলাদার তার মোটরসাইকেল প্রতীকের পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিতে অনুরোধ করেছিলেন। তিনি প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে গরুটি ফেরত চাইলে উপজেলায় গিয়ে গরুটি ফেরত দিয়ে আসেন। গরুটি এখন উপজেলা চেয়ারম্যানের সরকারি বাসভবনে রয়েছে।

অভিযোগটি শতভাগ মিথ্যা দাবি করে উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন অর রশীদ হাওলাদার বলেন, আমি তাকে মৎস্য বিভাগ থেকে একটা গরু দিয়েছি। সে কিছু করে খাক এবং তাকে আমার ক্যাম্পেইন করতে রিকোয়েস্টও করেছি। তখন ও বলেছে আমি এখনো নামি নাই। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা ছড়ানো হচ্ছে। এর বেশি কিছু হয়নি। গরু কি আমার, যে আমাকে ফেরত দেবে।

মন্তব্য করুন

daraz
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
পটুয়াখালীর ২৮ গ্রামে পালিত হচ্ছে ঈদুল আজহা
ডোবা থেকে জীবিত ডলফিন উদ্ধার
উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: রাজাপুরে বাচ্চু ও কাঁঠালিয়ায় মনির নির্বাচিত
আনসার সদস্যকে মারধর, কর্মীকে ৬ মাসের কারাদণ্ড