• ঢাকা সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
logo

রুমা ও বিলাইছড়ি সীমান্তে তুমুল গোলাগুলি, আতঙ্কে এলাকাবাসী

আরটিভি নিউজ

  ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ২৩:২৭

বান্দরবানের রুমা উপজেলার রুমা খাল, প্রাংসা, পাইন্দু ও রাঙ্গামাটির বিলাইছড়ি উপজেলার বড়থলি সীমান্ত এলাকায় তীব্র গোলাগুলির খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ওইসব এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) বিকেলে গোলাগুলির শব্দ পান স্থানীয়রা। তবে কার সঙ্গে কার গোলাগুলি হয়েছে তারা নির্দিষ্ট করে বলতে পারছেন না।

রুমা বাজারের একজন ব্যবসায়ী জানান, গত ২ এপ্রিল ব্যাংক ডাকাতির ঘটনার পর থেকে রুমাবাসী খুব ভয়ে আতংকে জীবনযাপন করছে। সে সময় থেকে বাজারের সব দোকানপাট সন্ধ্যা ৬টা বা ৭টার দিকে বন্ধ করে দেই। তবে আজকের গোলাগুলির ঘটনায় আমরাসহ এলাকার মানুষ আতংকিত হয়ে সব দোকানপাট বন্ধ করে দিয়েছি।

এদিকে বান্দরবানের রুমা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান উহ্লা চিং মারমা জানান, কয়েকদিন ধরে রুমা উপজেলায় যৌথ বাহিনীর অভিযান চলছে। আমাকে স্থানীয়রা বিকেলে জানিয়েছেন, রুমা উপজেলার পাইন্দু ইউনিয়ন এবং রাঙ্গামাটি জেলার বিলাইছড়ি উপজেলার বড়থলি ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী দুর্গম এলাকায় বিকেল থেকে গোলাগুলি হচ্ছে। এলাকাবাসীর ধারণা, কেএনএফের (সশস্ত্র গোষ্ঠী কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট) সদস্যদের সঙ্গে যৌথবাহিনীর গোলাগুলি হচ্ছে।

রুমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.শাহজাহান জানান, গোলাগুলির সংবাদ পেয়েছি। তবে বিস্তারিত এখনো জানা যায়নি।

সম্প্রতি রুমা উপজেলায় সোনালী ব্যাংক ডাকাতির ঘটনায় গত ৫ এপ্রিল থেকে সন্ত্রাসীদের ধরতে অভিযান শুরু করে যৌথবাহিনী, যা এখনও চলমান। অভিযানে এ পর্যন্ত কেএনএফ সদস্য ও তাদের সহযোগীসহ ৬৬ জনকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন

daraz
  • দেশজুড়ে এর পাঠক প্রিয়
আরও পড়ুন
রুমায় সেনাবাহিনীর সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে কেএনএফের ৩ সদস্য নিহত
আরসার আস্তানায় র‍্যাবের অভিযান, গোলাগুলি চলছে 
কেএনএফের আরও ২ সদস্য কারাগারে
বান্দরবানে যৌথবাহিনীর অভিযানে কেএনএফের সন্ত্রাসী নিহত
X
Fresh