Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১৬ জানুয়ারি ২০২২, ১৬:৫২
আপডেট : ১৬ জানুয়ারি ২০২২, ১৭:০৫

আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত করার প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ

আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত করার প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ

সিরাজগঞ্জে কাজীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সহিদ সায়োয়ারকে কুপিয়ে আহত করার প্রতিবাদে সিরাজগঞ্জ-কাজীপুর আঞ্চলিক সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করছে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) সকাল থেকে কাজীপুরের সীমান্তবাজার এলাকায় সড়কে অবস্থান নিয়ে আগুন জ্বালিয়ে ও গাছের গুড়ি ফেলে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে নেতাকর্মীরা। এছাড়া আন্দোলনকারীরা সড়কের বিভিন্ন স্থানে দফায় দফায় বিক্ষোভ মিছিল করে।

এ সময় বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান ও উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাজু আহম্মেদের ইন্ধনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সহিদ সায়োয়ারকে কুপিয়ে আহত করা হয়। নেতাকর্মীরা এ ঘটনায় দলীয় পদ থেকে খলিলুর রহমান ও রাজু আহম্মেদের স্থায়ী বহিষ্কার ও জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানান। এ সময় উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইদুল ইসলাম তালুকদার, কামরুজ্জামান বিপ্লব, সহ-প্রচার সম্পাদক শওকত আবকর, আইন বিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ আব্দুল লতিফ, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি বিপ্লব সরকার, গান্ধাইল ইউনিয়ন যুবলীগের জিয়াউর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গেল শনিবার (১৫ জানুয়ারি) বিকেলে উপজেলার গান্ধাইল ইউনিয়নের বড় মসজিদ মোড়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সহিদ সারোয়ারকে কুপিয়ে আহত করা হয়।

এ বিষয়ে কাজীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান সিরাজী বলেন, সংঘর্ষের ঘটনা দলের কোনো কোন্দল ও দ্বন্দ্বের জেরে নয়। এমনকি দলের কেউই জড়িত নন। এটি মূলত গান্ধাইল ইউনিয়নে একটি ধর্ম সভার ব্যানারে নাম লেখা নিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সহীদ সরোয়ার হোসেনের সাথে পার্শ্ববর্তী নয়াপাড়ার কতিপয় মুরুব্বিদের সাথে কথা-কাটাকাটির ঘটনায় সামাজিক বিরোধের ফল। তারপরেও স্থানীয় সাংসদ প্রকৌশলী তানভীর শাকিল জয়ের নির্দেশে তাকে কাজীপুর থেকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে পাঠিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

কাজিপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাজু আহম্মেদ এ প্রসঙ্গে মোবাইল ফোনে বলেন, আমি ঢাকা এসেছি। ধর্ম সভার ব্যানারে নাম দেওয়া নিয়ে আহলে হাদিসের সমর্থকদের সাথে স্থানীয় মুরুব্বিদের ঝগড়া হয়। ওই ঘটনার জেরে আওয়ামী লীগ নেতা সহীদ ভাই লাঞ্ছিত হয়েছেন বলে শুনেছি। পরবর্তীতে এ ঘটনার সাথে আমাকে জড়ানোর অভিযোগটি একেবারেই উদ্দেশ্যমূলক ও রাজনৈতিক গ্রুপিং বা দ্বন্দ্বের বহিঃপ্রকাশ ছাড়া আর কিছু না।

এ ঘটনায় কাজীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পঞ্চানন্দ সরকার জানিয়েছেন, সহিদ সারোয়ারের বোন বাদী হয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাজু আহম্মেদসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছে। দোষীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

এসএস/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS