Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ২২ মে ২০২২, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

সিলেট প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ০৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৮:৫২
আপডেট : ০৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৯:১১

নৌকায় সিলসহ ব্যালট কেন্দ্রে দিতে গিয়ে ধরা ২ রিটার্নিং কর্মকর্তা

নৌকায় সিলসহ ব্যালট কেন্দ্রে দিতে গিয়ে ধরা ২ রিটার্নিং কর্মকর্তা
নৌকায় সিলসহ ব্যালট কেন্দ্রে দিতে গিয়ে ধরা ২ রিটার্নিং কর্মকর্তা

সিলেটের জকিগঞ্জের একটি ইউনিয়নে নির্বাচন কর্মকর্তাদের যোগসাজশে ভোট জালিয়াতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত দুই সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাকে আটক করেছে পুলিশ। উপজেলার কাজলসার ইউনিয়নের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়।

ভোট শেষ হওয়ার ঠিক আগ মুহূর্তে সিলেটের জেলা প্রশাসক (ডিসি) এম কাজী এমদাদুল ইসলাম ও পুলিশ সুপার (এসপি) ফরিদ উদ্দিন ওই দুইজনকে আটক করেন।

জানা গেছে, কাজলসার ইউনিয়নের চারটি ইউনিয়নে উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় থেকে ভোটার সংখ্যা অনুযায়ী গতকাল মঙ্গলবার প্রয়োজনীয় সংখ্যক ব্যালট পেপার পৌঁছানো হয়নি। বুধবার দুপুর পর্যন্ত ইউনিয়নের মরিচা ভোটকেন্দ্রে ব্যালট পেপারের অভাবে ভোটাররা ভোট দিতে পারায় বিষয়টি সরকারের গোয়েন্দা সংস্থার নজরে আসে। এ সময় ইউনিয়নের দায়িত্বে থাকা রিটার্নিং কর্মকর্তা উপজেলা কৃষি অফিসার আরিফুল হকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে প্রশাসনের ঊর্ধ্বন কর্মকর্তাদের জানান, তিনি নিজে প্রয়োজনীয় ব্যালট পেপার কেন্দ্রে নিয়ে যাচ্ছেন।

পরবর্তীতে রিটার্নিং কর্মকর্তা আরিফুল হক ব্যালট পেপার নিয়ে মরিচা ভোটকেন্দ্রে গেলে তার গাড়ি থেকে সিল মারা ৪০০ পেপার উদ্ধার করে পুলিশ। এই ব্যালটগুলোর মধ্যে নৌকা এবং আরও দুজন মহিলা ও পুরুষ মেম্বার প্রার্থীর প্রতীকে সিল মারা ছিল।

এ অবস্থায় বিকাল ৩টার দিকে পুরো ইউনিয়নের ভোট স্থগিত করে প্রশাসন। এ ছাড়াও অভিযুক্ত উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সাদমান সাকিব ও রিটার্নিং কর্মকর্তা আরিফুল হককে আটক করে পুলিশ। আটকের বিষয়টি বুধবার (৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় আরটিভি নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন সিলেট জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম।পু

লিশ সুপার (এসপি) ফরিদ উদ্দিন বলেন, জকিগঞ্জের ৯ ইউনিয়নে ভোট চলছিল। এর মধ্যে কাজলসার ইউনিয়নের ৪ কেন্দ্রে উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় থেকে ভোটার সংখ্যা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় সংখ্যক ব্যালট পেপার পৌঁছানো হয়নি বলে অভিযোগ আসছিল।

এমআই/টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS