Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

বরিশাল প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১১:৫৬
আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:২৯

বরিশালের সেই শিশুর পছন্দ ওয়ার্ন-রশিদ (ভিডিও)

বরিশালের সেই শিশুর পছন্দ ওয়ার্ন-রশিদ
আসাদুজ্জামান সাদিদ

লেগ স্পিন আর গুগলি বল করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে আসাদুজ্জামান সাদিদ নামে ছয় বছরের একটি শিশু। সাদিদ বরিশাল নগরীর ৪নং ওয়ার্ডের মহাবাজ এলাকার নাজির বাড়ির বাসিন্দা ও উলালঘূনী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্র।

মামা সিরাজুল ইসলাম শুভ তার ভাগ্নে সাদিদের করা বোলিংয়ের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করার পর তা ভাইরাল হয়। সেই ভিডিও ফেসবুক ও ইন্সটাগ্রামে নিজের প্রোফাইলে পোস্ট করেছেন সাবেক ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকার। মুহূর্তের মধ্যেই সেটি ছড়িয়ে পরে সারা বিশ্বের কোটি কোটি মানুষের কাছে। প্রশংসা শুরু হয়ে যায় ক্ষুদে ক্রিকেটার সাদিদের।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাকে উন্নত প্রশিক্ষণ দেওয়ার দাবিও তোলা হয়েছে, যাতে সে ভবিষ্যতে বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে খেলতে পারে।

গত শনিবার দুপুরে যখন শিশু আসাদুজ্জামান সাদিদের সঙ্গে কথা হয়, তখন সে তার বিশ্বসেরা আইডল ক্রিকেটারদের নাম এক নিঃশ্বাসে বলে ফেলে। এই শিশুটি শুধু স্পিন বা গুগলি নয়, দুর্দান্ত ব্যাটিংও করে।

সাদিদের কোচ মামা সিরাজুল ইসলাম শুভ আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, সাদিদ ব্যাটিং ও বোলিং করে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। মাসখানেক আগে ওর একটি বোলিং ভিডিও ফেসবুকে আপলোড দেওয়া হয়েছিল। সেই ভিডিওতে শাহরিয়ার নাফিস কমেন্টে লিখেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ।’

সাদিদ আরটিভি নিউজকে জানিয়েছে, তার পছন্দের ক্রিকেটারদের তালিকায় আছে শেন ওয়ার্ন ও রাশিদ খানের মতো লেগ স্পিনাররা।

সে আরটিভি নিউজকে আরও জানিয়েছে, শেন ওয়ার্ন ও রাশিদ খান, বিরাট কোহলি, সাকিব আল হাসান, রোহিত শর্মা, এবি ডি ভিলিয়ার্স, রবীন্দ্র জাদেজা, মহেন্দ্র সিং ধোনি ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের মতো ক্রিকেটারদের ভালো লাগে।

সাদিদের কোচ মামা সিরাজুল ইসলাম শুভ আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, সাদিদ এখন সবার কাছে ক্ষুদে লেগ স্পিনার হিসেবে পরিচিত। তবে তার শুরুটা ব্যাটসম্যান হিসেবে।

সিরাজুল ইসলাম শুভ শোনালেন সাদিদের বেড়ে ওঠার গল্প। বলেন, সাদিদ ছোটবেলা থেকে খেলা দেখত এবং তিন বছর বয়স থেকে ক্রিকেট খেলা শুরু করে। একদিন বাংলাদেশের খেলায় সাকিব ম্যান অব দ্য ম্যাচ হওয়ায় সাদিদ জানতে চায় সাকিব বেশি রান না করেও কেন ম্যান অব দ্য ম্যাচ হয়েছেন।

আমি তাকে বলি যে সাকিব ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি বোলিংও করে। তখন সাদিদ বলে তাকে বোলিং শেখাতে। গত দেড় বছর মহামারি কারণে ঘরের ভেতরেই সে ক্রিকেট খেলেছে। এরপর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে এলে বাইরে খেলা শুরু করেছে।

বাড়ির সামনের উলালঘূনী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রেথম শ্রেণির ছাত্র সাদিদের ইচ্ছা জাতীয় দলে খেলার। সে আরটিভি নিউজকে জানিয়েছে, আমি বড় হয়ে সাকিব আল হাসানের মতো হতে চাই।

এলাকার সবাই তাকে ক্রিকেট খেলায় সাহায্য করে বলে জানায় শুভ। ভাগ্নের বোলিংয়ের ভিডিও তেমন কিছু না ভেবেই ফেসবুকে আপলোড দিয়েছিলেন তিনি। সেটা এমন ঝড় তুলবে তা কল্পনারও বাইরে ছিল।

স্থানীয়দের স্বপ্ন সাদিদকে সঠিক গাইড করা হলে সে একদিন এ দেশের জাতীয় দলের প্রতিনিধিত্ব করবে।

শুভ আরটিভি নিউজকে বলেন, সাদিদ যখন ক্লাস সেভেনে বিকেএসপিতে ভর্তি করানো হবে। আর যদি সুযোগ হয় তাহলে সাকিব আল হাসানের একাডেমিতে অনুশীলন করানো হবে। আমরা চাই সাদিদ যেন সঠিক পরিচর্যা পায় ও তার প্রতিভা যেন হারিয়ে না যায়।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে ভালো লেগ স্পিনার নেই। আমার বিশ্বাস সাদিদের যদি যত্ন নেওয়া হয়, তাহলে ভবিষ্যতে বাংলাদেশে ভালো একজন লেগ স্পিনার পাওয়া যাবে।

এমআই/টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS