Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১ কার্তিক ১৪২৮

যশোর প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ০৭ অক্টোবর ২০২১, ২১:৫৬
আপডেট : ০৭ অক্টোবর ২০২১, ২২:২৯

স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসির আদেশ

স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসির আদেশ

যশোরে স্ত্রী হত্যার দায়ে মনিরুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তিকে ফাঁসি ও ৫০ হাজার টাকার অর্থদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন জেলা ও দায়রা জজ আদালত।

বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) দুপুরে বিচারক মো. ইখতিয়ারুল ইসলাম মল্লিক এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি কারাগারে উপস্থিত ছিলেন।

দণ্ডিত মনিরুল ইসলাম যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলা ভাতুড়িয়া গ্রামের মৃত আবদুল খালেকের ছেলে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি ইদ্রিস আলী জানান, ১৯৯২ সালে বাঘারপাড়া উপজেলার হাবুল্যা গ্রামের আবদুর রশিদের মেয়ে তারা স্ত্রীর সঙ্গে মনিরুল ইসলামের বিয়ে হয়। তাদের হাবিবা ও আবু হুরাইরা নামে দুটি সন্তান রয়েছে।

২০০৯ সালের পর থেকে নানা অজুহাতে তারার ওপর নির্যাতন শুরু করে মনিরুল। ২০১২ সালের সেপ্টেম্বর তারা বেগমের মা সবুরা খাতুন জানতে পারেন তার মেয়ে স্বামী বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়েছে। খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে ওই বছর ৮ অক্টোবর মেয়ে জামাই মনিরুলের বাড়িতে যান সবুরা খাতুন। সেখানে গিয়ে ছেলে-মেয়েদের কাছে জানতে চায় তার মা কখন কীভাবে চলে গেছে। এ সময় তারা জানায় তাদের মাকে তাদের পিতা মুখে গামছা ঢুকিয়ে ও বালিশ চাপা দিয়ে ওপরে দাঁড়িয়েছিল। এতে তার মা মরে যায়। এরপর তার মায়ের মরদেহ ঘরের পেছনে বাগানে নিয়ে যায়। এ বিষয়ে মনিরুলকে জিজ্ঞাসা করলে সে স্থানীয়দের সামনে হত্যার কথা স্বীকার করে ও মরদেহ বাগানে মাটি চাপা দিয়েছে বলে জানায়।

বিষয়টি সঙ্গে সঙ্গে পুলিশকে জানালে বাঘারপাড়া থানার ওসি ঘটনাস্থলে আসেন এবং মনিরুলকে আটক করে। এরপর তারা স্ত্রী মরদেহ উত্তোলন করেন। এ ঘটনায় তারা বেগমের মা সবুরা খাতুন বাদী হয়ে মনিরুল ইসলামের নামে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তিনি আরও জানান, পুলিশ তদন্ত শেষে মনিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করলে বিচার শুরু হয়। সাক্ষ্য প্রমাণে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক আজ আসামি মনিরুল ইসলামকে ফাঁসি ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডের রায় ঘোষণা করেন।

এমএন/টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS