Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ৮ কার্তিক ১৪২৮

মাছের সঙ্গে এ কেমন শত্রুতা

মাছের সঙ্গে এ কেমন শত্রুতা
মাছ

চাঁদপুরের কচুয়ায় চাষকৃত দিঘিতে বিষ ঢেলে ৪ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। এসব মাছের মধ্যে ছিলো রুই, মৃগেল, তেলাপিয়া, কৈ সহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ। সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) আরটিভি নিউজকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন ক্ষতিগ্রস্ত মৎস্য ব্যবসায়ী কার্তিক চন্দ্র রায়।

ক্ষতিগ্রস্ত মৎস্য ব্যবসায়ী কার্তিক চন্দ্র রায় আরটিভি নিউজকে জানিয়েছেন, কচুয়া চাঙ্গিনী গ্রামের পাঁচ আনি বাড়ি তার নিজ বসতভিটার সামনের ৪৫ শতাংশ জমির ওপর ঋণ নিয়ে ৫ বছর যাবত দিঘিতে এই মাছ চাষ করে ব্যবসা করে আসছে। মাছের এই প্রজেক্টটিতে রুই, মৃগেল, তেলাপিয়া, কৈ সহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ রয়েছে। গত ২৫ সেপ্টেম্বর শনিবার আমার সঙ্গে শত্রুতা করে বিষ দিয়ে ৫০ মণ মাছ মেরে ফেলেছে। যার দাম ৪ লাখ টাকা হবে।

কার্তিক চন্দ্র রায় আরটিভি নিউজকে আরও বলেন, হয়তো পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে কেউ আমার এতো বড় সর্বনাশ করেছে। আমি এই শোক সইতে না পেরে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নেই। পরে সুস্থ্য হয়ে বিচার পেতে কচুয়া থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি।

এলাকার বেশ কয়েকজন আরটিভি নিউজকে বলেন, কচুয়ার চাঙ্গিনী গ্রামের কুমার চন্দ্র রায়ের ছেলে কার্তিক চন্দ্র রায় (৩০)। দীর্ঘদিন যাবত সে গ্রামের তার নিজ বসতভিটার পাশে একটি দিঘিতে ঋণ নিয়ে মাছের প্রজেক্টটি চালিয়ে যাচ্ছে। খোনে রুই, মৃগেল, তেলাপিয়া, কৈ সহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ রয়েছে। মানুষ এত প্রাষন্ড হয় কি করে। বিষ ঢেলে লাখ লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলা হয়েছে। আমরা ভাবতেও পারছি না মাছের সাথে এ কেমন শত্রুতা! তারা বলেন, কার্তিক চন্দ্র রায় মাছের প্রজেক্টের পাশাপাশি এলাকার সামাজিক নানা কাজেও জড়িত।

এ ব্যাপারে কচুয়া থানার অফিসার ইনর্চাজ মোঃ মহিউদ্দিন আরটিভি নিউজকে জানান, কার্তিক চন্দ্র রায় এ ঘটনা বিচার চেয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। কচুয়া থানার এস আই মামুনকে পাঠানো হচ্ছে বিষয়টি তদন্ত করার জন্য। কার্তিক চন্দ্র রায়কে সর্বোচ্চ আইনি সহায়তা দেয়া হবে।

এমআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS